শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটে পাঁচবিবিতে পুলিশ পরিচয় দিয়ে প্রতারনার অভিযোগে ৩ প্রতারকে আটক করেছে পুলিশ।
পুলিশ সদর দপ্তরের গোপনীয় শাখার পুলিশ পরিদর্শক মিজানের পরিচয় দিয়ে দেশের বিভিন্ন থানায় কর্মরত পুলিশের কাছ থেকে টাকা আদায় করে প্রতারনা করে আসছে এমন অভিযোগে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার নওদাগ্রাম থেকে পুলিশের ভুয়া পরিদর্শক আল-আমিন (৪২) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তার দুই সহযোগী নওদা গ্রামের দাদা শ্বশুর মো. ইসাহাক (৬০) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগম (৫৫) কে আটক করেছে পুলিশ। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত কছেন পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব ।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আটককৃত আল আমিন দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার ঈদগাঁও এলাকার আপেল মাহমুদের ছেলে। আলামিন পুলিশ সদর দপ্তরের গোপনীয় শাখার পুলিশ পরিদর্শক মিজানের পরিচয় দিয়ে দেশের বিভিন্ন থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের নানা অভিযোগ ও ভয়ভীতি দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে টাকা আদায় করে আসছিল।
এছাড়াও পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সদর দপ্তরে অভিযোগ আছে বলে এমন অভিযোগ এনে তাদের চাকরীচ্যুত ও শাস্তির ভয় দেখাতো। বিষয়টি পুলিশ সদর দপ্তরের নজরে এলে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।
পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে প্রতারণার কথা স্বীকার করেছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা আছে। তার বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।