বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ঠাকুরগাঁওয়ে সদর উপজেলার দেবীপুর ইউনিয়নের মূজাবন্নী কুমারপাড়া গ্রামের নিশি পাল (৩৫) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে বলে জানান ভুক্তভোগী গৃহবধূ। এমনকি ভিটে ছাড়া করার হুমকিও দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর অভিযোগ, গত ২২ জানুয়ারি রাতে ঘর থেকে বের হলে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিবেশী নিশি পালের লালসার শিকার হন তিনি। পরে তাকে নানা ধরনের হুমকি দেওয়া হয় ঘটনা ধামাচাপা দিতে। পরদিন অসুস্থ ওই নারী পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা নেন।

ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর স্বামীর অভিযোগ, জোরপূর্বক চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে এ ঘটনার নামমাত্র মীমাংসা করা হয়েছে। যা আমরা চাইনি। আমরা নিশি পালের বিচার চাই। ভয়ে থানায় যেতে পারছেন না বলেও জানায় তিনি।

এ বিষয়ে জোনতে ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোয়াজ্জেম হোসেনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

ঠাকুরগাঁও থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। যদি ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ থানার সহায়তা চায় আমরা তাৎক্ষণিক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।