বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুলাদীতে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর প্রচারে হামলা, মাইক ভাঙ্গচুর করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পোস্টার ব্যানারে অগ্নিসংযোগ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী দিদারুল আহসান খানের প্রচারে নৌকা প্রতীকের কর্মীরা হামলা চালায়। হামলার প্রতিবাদে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী উপজেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক দিদারুল আহসান খান রবিবার সাড়ে ১২টায় মুলাদী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও অভিযোগ করেন গত শনিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় নৌকা প্রতীকের কর্মীরা ৮নং ওয়ার্ডের মোহাম্মাদ কবিরাজের বাড়ির সামনে তার প্রচারের মাইক ও অটোরিকসা ভাঙ্গচুর করে খালে ফেলে দেয় এবং ব্যানারে অগ্নিসংযোগ করে। ক্ষমতাসীন নৌকা প্রতীকের কর্মী-সমর্থকরা প্রতিনিয়তই তার কর্মীদের ওপর হামলা করছে কিন্তু নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কোনো আইনী ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। এছাড়া বহিরাগতরা দেশিয় অস্ত্র ও মোটরসাইকের নিয়ে নির্বাচনী বিধি লঙ্গন করে স্বতন্ত্র প্রার্থী কর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের মা-বাবাকে হুমকি এবং ভোটে কেন্দ্রে না যেতে হুমকি প্রদানসহ প্রান নাশের হুমকি দিচ্ছে বলেও তিনি সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন। এসময় তিনি আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি পৌর নির্বাচনে সুষ্ঠু সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টির জন্য নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি দাবী জানান। এসময় তার সাথে শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। এব্যাপারে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মেয়র শফিক উজ্জামান রুবেল স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারে হামলা-ভাঙ্গচুরের বিষয়টি অস্বীকার করে জানান আমার কোনো কর্মী-সমর্থক কারও ওপর হামলা কিংবা কাউকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেনি। প্রার্থী দিদারুল আহসান খান আমার কর্মীদের মোটরসাইকেলের চাবি নিয়ে আমার কর্মীদের বিরুদ্ধে উল্টো অভিযোগ করেছেন।

Previous articleচান্দিনায় ফেন্সিডিলসহ ৪ মাদকসেবী আটক
Next articleমুলাদীতে প্রথম করোনা টিকা নিলেন স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।