গিয়াস কামাল: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার কাঁচপুর এলাকায় ৭ বছরের এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ মোশারফ মল্লিক নামের এক মাদ্রাসা অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শিশু শিক্ষার্থীর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল সোমবার সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনার শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিশুটির মা বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি ধর্ষণের চেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃত মোশারফ মল্লিক (৫৫) ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া থানার চেচরী গ্রামের মৃত কালু মল্লিকের ছেলে। সে কাঁচপুর কুদ্দুছের বাড়ীর ভাড়াটিয়া। শিশুটির মা তার মামলায় উল্লেখ করেন, তিনি ও তার পরিবার নিয়ে কাঁচপুর এলাকায় বসবাস করছেন। তার স্বামী স্থানীয় একটি গার্মেন্টে কাজ করেন। সে সুবাদে তার বাড়ীর পাশে ফয়েজীয়া কওমীয়া নুরানী হাফেজীয়া মাদরাসা ও এতিম খানার তার মেজ মেয়েকে পড়াশুনার জন্য ভর্তি করান। শিশুটি প্রতিদিন সকাল ৮টায় মাদ্রাসায় যায় এবং রাত ৮ টার সময় মাদ্রাসা থেকে বাসায় ফিরেন। এ সুযোগে চলতি মাসের ২৩ তারিখ বিকেল ৩টার দিকে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোশারফ মোল্লা তার শিশু মেয়েকে তার রুমে নিয়ে শিশুর শরীরের কাপড় চোপড় খুলে যৌনাঙ্গে আঙ্গুল দিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিশুটির চিৎকারে দিলে ধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তাকে হুমকি ধামকি দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। বাসায় গিয়ে শিশুটি তার মায়ের কাছে বিষয়টি খুলে বললে তিনি সোনারগাঁও থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে সোনারগাঁও থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, শিশু ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Previous articleঅনলাইনের মাধ্যমে ব্যবসায়ীরা নিজের ভ্যাট নিজেই প্রদান করছে: রংপুরের ভ্যাট কমিশনার
Next articleরাজারহাটে পিতৃ পরিচয়ের দাবিতে স্ত্রী-সন্তানদের অনশন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।