তাবারক হোসেন আজাদ: মহান স্বাধীনতা দিবসে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের উদ্যোগে কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে বিনামূল্যে ৭০ জন নারীকে সেলাই মেশিন ও চিকিৎসার জন্য ১১ জনের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়েছে। একই সময়ে রায়পুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ২০ অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকেও সেলাইমেশিন দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) দুপুরে পরিষদ প্রাঙ্গণে এ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আনোয়ার হোছাইন আকন্দ। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কুল প্রদীপ চাকমা ও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) আনোয়ার হোসেন। রায়পুরে অনুষ্ঠানে ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ, ইউএনও সাবরিন চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান এডঃ মারুফ বিন জাকারিয়া, সহকারি কমিশনার ভুমি আক্তার জাহান সাথি ও মুক্তিযোদ্ধা শহীদ উল্যা বিএসসি।

জেলা পরিষদ সূত্র জানায়, স্বাধীনতা দিবস ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা পরিষদের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে সাত লাখ টাকা ব্যয়ে ৭০ জন উপকারভোগী নারীকে সেলাই মেশিন দেওয়া হয়েছে। একই সময় বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ১১ জনকে ৮৩ হাজার টাকার অনুদানের চেক দেওয়া হয়।

এর আগে সকালে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলক ও গণকবরে ফুল দিয়ে শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো হয়। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মরণে পরিষদ প্রাঙ্গণে পাঁচ শতাধিক অসহায় মানুষকে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা ও ওষুধ দেওয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মো. শাহজাহান বলেন, বঙ্গবন্ধু অসহায় মানুষের অধিকার আদায়ে আন্দোলন করেছেন। তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সবসময় অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করেন। করোনা মহামারিতে তিনি অসহায়দের একমাত্র আস্থা ছিলেন। মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে অসহায় নারীদের কর্মসংস্থানের জন্য সেলাই মেশিন ও কয়েকজন অসুস্থ মানুষকে চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

Previous articleপীরগাছায় স্বাধীনতা দিবসে হয়নি পতাকা উত্তোলন
Next articleআইপিএল খেলতে কলকাতায় সাকিব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।