ফজলুর রহমান: রংপুরের পীরগাছা উপজেলায় ভাতিজিকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মিজানুর রহমান (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রোববার দুপুর ২টার দিকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নের সাহেববাজার এলাকায় তার ওপর হামলা করা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বখাটে নুর আলমকে আটক করেছে পুলিশ। নুর আলম ওই এলাকার ভোলা মিয়ার ছেলে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মিজানুর রহমানের ভাতিজি ও স্থানীয় একটি মাদরাসার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন নুর আলম। বিষয়টি ওই ছাত্রী পরিবারের সদস্যদের জানালে মিজানুর রহমান নুর আলমকে উত্ত্যক্ত করতে বারণ করেন। এতে নুর আলম ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। এরই জের ধরে গত শনিবার(২৭ মার্চ) সন্ধ্যায় মিজানুর রহমান বাড়িতে ফেরার সময় নুর আলম ও তার সহযোগীরা তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ফেলে রেখে চলে যান। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রোববার দুপুর ২টার দিকে মিজানুর রহমানের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বখাটে নুর আলমকে বিকাল ৪টার দিকে আটক করেছে পুলিশ। পীরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় বখাটে নুর আলমকে আটক করা হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Previous articleহেফাজতের ডাকা হরতালে সোনারগাঁওয়েও যান চলাচল বন্ধ
Next articleমুলাদীতে কৃষক লীগের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ আঃ রব সেরনিয়াবাতের জন্মশতবর্ষ পালিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।