বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকদের উপর ছাত্রলীগ ও বহিরাগতদের হামলার প্রতিবাদে কর্মবিরতি পালন করছে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

বুধবার (২৮ এপ্রিল) সকাল থেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা কাজে যোগদান না দিয়ে এই প্রতিবাদ শুরু করে। হাসপাতালের কোনো ওয়ার্ডেই চিকিৎসা দিতে দেখা যায়নি চিকিৎসকদের।

সমস্যা সমাধানে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ, পুলিশ প্রশাসন, বেলা ১২টায় ইন্টার্ন চিকিৎসকদেরর সাথে জরুরি সভায় বসে। দুই ঘণ্টার রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পরও কোনো সুরাহা হয়নি।

দোষীদের আইনের আও তায় না আনা পর্যন্ত কর্মবিরতি চালানোর ঘোষণা দেন ইন্টার্ন চিকিৎসক সদস্য সচিব ডা. মো. তাজওয়ার রহমান খান।

লকডাউনের কারনে স্বাভাবিক সময়ের থেকে রোগী কম থাকায় ইন্টার্ন চিকিৎসকরা কর্মবিরতিতে তেমন প্রভাব পড়েনি বলে জানান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিচালক এস এম হুমায়ুন কবির। ঘটনার কারন অনুসন্ধানে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

চিকিৎসকদের ওপর হামলার ঘটনা যারাই জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মো.মোখলেছুর রহমান বলেন, ‘বহিরাগত যারা এখানে সমস্যা সৃষ্টি করবে তাদের বিরুদ্ধে আমরা কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় একটি পক্ষ ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ওপর হামলা চালায়। এতে পাঁচজন আহত হয়। এর আগেও এই দুই পক্ষের মধ্যে বিভিন্ন সময় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

Previous articleমাস্ক না পরলে আধাঘণ্টা রোদে বসিয়ে রাখছে পুলিশ
Next articleবেনাপোলে ভারতীয় ট্রাক চালকদের অবাদ বিচরণে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে বেনাপোল পৌর এলাকাবাসী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।