প্রদীপ অধিকারী: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার একটি গ্রামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে ভুক্তভোগীর বাবা বাদি হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার পরে রাতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আবু সুফিয়ান (২৭) কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সে উপজেলার কুয়াতপুর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দেব। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ঐ যুবক দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন প্রকার কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে রাজি না হওয়ায় মেয়েটিকে কৌশলে গত ২৫ মার্চ কুয়াতপুর গ্রামের জৈনক জোব্বার আলীর বাড়িতে নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে ২৮ মার্চ দুপুরে পাঁচবিবি পৌর শহরের একটি কাজী অফিসে নিয়ে গিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে বলে এ মামলায় উল্লেখ করেন মামলার বাদি মেয়ের বাবা। পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দেব জানান, “ভুক্তভোগীর বাবা বাদি হয়ে থানায় মামলা করার পর গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে রাতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর তাকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেররণ করা হয়েছে।”

Previous articleসাপাহারে প্রচন্ড খরায় ঝরছে গাছের আম, বাগান মালিকরা হতাশ
Next articleঈশ্বরদীতে মধু বিক্রেতাকে খুঁটির সাথে বেঁধে মারধরের ঘটনায় গ্রেফতার ১
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।