অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফলে ধুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনিচুর রহমান রবের দাপটে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। নির্বাচনের দ্বন্দ্বকে পূঁজি করে গাছ কেটে নেওয়ার মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মীদের ফাঁসিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আনিচুর রহমান রবের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগসহ ধুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আজ শনিবার (১ মে) সরেজমিন জানা গেছে, গত ১৭ এপ্রিল ধুলিয়া ইউনিয়নের ভ্যারনতলা বাজারে পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট ঝগরায় ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি শোয়াইব হান্নান (৪৫), ধুলিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো.শহিদুল ইসলাম (৫৫) এবং মো. হারুন হাওলাদার (৫০) কে পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর জখম করে চেয়ারম্যান আনিচুর রহমান রব ও তার লোকজন। ওই ঘটনায় চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামী করে ১১ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা চেষ্টা মামলা করে শোয়াইব হান্নান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শোয়াইব হান্নান, মো. শহিদুল ইসলাম এবং মো. হারুন হাওলাদার ভ্যারনতলা বাজার থেকে চৌরাস্তা পর্যন্ত সড়কের ১১টি সরকারি গাছ কেটে নিয়েছেন বলে উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলীর কাছে মিথ্যা অভিযোগ করেন চেয়ারম্যান। চেয়ারম্যানের এহেন মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয়দের মধ্যে মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা মো. বারেক হাওলাদার জানান, প্রায় ৪ বছর আগে ভ্যারনতলা বাজার থেকে চৌরাস্তা পর্যন্ত বিদ্যুৎ লাইন স্থাপণের জন্য ব্যক্তিগত ও এলজিইডির রোপনকৃত বিভিন্ন প্রজাতির অনেক গাছ কেটে ফেলে হয়েছিল। দু’এক বছরেতো কোন গাছ কাটা হয়নি। একই ধরণের বক্তব্য পাওয়া গেছে স্থানীয় একাধিক ব্যাক্তির কাছ থেকেও। ধুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ধুুলিয়া ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মু. হুমায়ুন কবির বলেন, আনিচুর রহমান রব নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজিত হবেন জেনে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। নৌকার সমর্থকদের উপর একের পর এক হামলা এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে যাচ্ছেন। এখন হত্যা চেষ্টার মামলা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে মামলার বাদীপক্ষের বিরুদ্ধে গাছ কাটার মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছেন। ধুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান তালুকদার বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান আনিচুর রহমান রব আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। দলের মনোনিত প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় তাকে ধুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক পদ থেকে সাময়িক বহিস্কারও করা হয়েছে। ১৭ এপ্রিলের ঘটনার মামলা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে আওয়ামী লীগ নেতা শহিদুল ইসলাম ও যুবলীগ নেতা শোয়াইব হান্নানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এছাড়াও প্রতিনিয়তঃ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের এলাকা ছাড়ার হুমকি দিয়ে আসছে। ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান তালুকদার আরো বলেন, চেয়ারম্যান আনিচুর রহমান রব নিজেই বিগত দিনে প্রায় ২০০ সরকারি গাছ কেটে নিয়েছেন। যা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সংবাদও প্রকাশিত হয়েছিল। এ বিষয়ে ধুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনিচুর রহমান রব বলেন, যারা সরকারি গাছ কেটে নিয়েছে আমি তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছি। অভিযোগ সম্পর্কে উপজেলা প্রকৌশলী মো. সুলতান আহম্মেদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে সঠিক তথ্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

Previous articleবাউফলে কৃষকের ধান কেটে দিলেন যুবলীগ নেতাকর্মীরা
Next articleরংপুরে সেমাই কারখানায় আগুন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।