জয়নাল আবেদীন: স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে রংপুরের শিক্ষার্থীরা। অন্যথায় সারাদেশে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবেন বলে হুশিয়ারী দেয়া হয়। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রংপুর প্রেসক্লাব চত্বরে দাবি আদায়ে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, করোনার কারণে বিশ্ব বেকায়দায় পড়েছে এটা সত্য। কিন্তু সবকিছু খোলা রেখে শুধু প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে করোনা মোকাবেলা হাস্যকর ব্যপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশ্বের কোথাও এতোদিন ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ নেই। অথচ বাংলাদেশে করোনার অযুহাতে স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সেশন জট, পরীক্ষা, ল্যাব-ক্লাস, চাকরির ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়া, অর্থনৈতিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে।শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, এভাবে মাসের পর মাস ঘরবন্দি থাকাতে তাদের মধ্যে মানসিক চাপ বেড়েছে। অনেকেই মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে আত্মহনন করেছে। করোনাকালে অনেক শিক্ষার্থীকে অসময়ে বিয়ের পিড়িতে বসতে হয়েছে। অনেক শিক্ষার্থীর নিজের পড়ালেখা চালানোর জন্য উপার্জনের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। এভাবে চলতে থাকলে শিক্ষার্থীদের ছাত্র পরিচয়ের সংকট তৈরি হবে। সকল শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হলে এই সংকট তৈরি হত না। এরজন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে দোষারোপ করেন তারা।মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মঞ্জুরুল মোর্শেদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী খালেকুল ইসলাম, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কামরুল হাসান, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জান্নাতুন নাঈম জেরি, হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রওনক জাহান, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মমিনুল ইসলাম, সুশেন, কারমাইকেল কলেজের ওসমান গণি, রংপুর সরকারি কলেজের জসিম আহমেদ, লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম ইসলাম, আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ফিরোজুল ইসলাম প্রমুখ। সমাবেশে রংপুরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ছাড়াও রংপুরে অবস্থানরত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থী অংশ নেন। এসময় অবিলম্বে স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। তা নাহলে দেশজুড়ে শিক্ষার্থীরা কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন তারা।উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে সারাদেশে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। টানা ১৫ মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সেশন জোটের কবলে পড়েছেন। ব্যহত হচ্ছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা।

Previous articleকলাপাড়ায় মিথ্যা মামলা দেয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
Next articleরংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৪৫ দিন পর ডায়ালাইসিস কার্যক্রম শুরু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।