অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফলের আলোচিত কিশোরী জেসমিন বেগম নসিমন এখন তিন নম্বর স্বামীর ঘর করছে।

জানা গেছে, চলতি বছরের ১৮ মে নসিমনের নানা ও নানুর মধ্যস্থতায় উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের তাঁতেরকাঠী গ্রামের ফারুক আকনের ছেলে মোঃ সোহলের সাথে দুই লাখ টাকা দেনমোহর করে তার প্রথম বিয়ে হয়। বিয়ের পর কয়েক দিনের মাথায় নসিমন সোহেলকে তালাক প্রদান করে প্রেমিক রমজানের সাথে পালিয়ে যায়। নসিমনের পিতা নজরুল ইসলাম রমজানের কাছে মেয়েকে বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য ২৪ জুন স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. শাহিন হাওলাদার সালিশ-বৈঠকে বসেন। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান নসিমনকে বিয়ে করার প্রস্তাব দিলে নসিমন ও তার পরিবার প্রস্তাবে একমত হয়ে নসিমনকে চেয়ারম্যানের কাছে বিয়ে দেন। ওই সময় নসিমনের জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ি জন্ম তারিখ ছিল ২০০৩ সালের ১১ এপ্রিল। এই জন্ম নিবন্ধনটি এখন ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এই জন্ম নিবন্ধনে দেখা যায়, ২০২১ সালের ১১ জুন নিবন্ধনকারী এবং প্রস্তুতকারীর সীলমোহরসহ স্বাক্ষর রয়েছে। ওই সময় মো. শাহিন হাওলাদার চেয়ারম্যান ছিলেন না।র কিন্তু স্কুলে দেয়া জন্ম নিবন্ধনে নসিমনের বয়স ১৪ বছর দেখানো হয়েছে। বিয়ের পর চেয়ারম্যান একজন অপ্রাপ্ত বয়সের কিশোরীকে বিয়ে করেছেন বলে কিছু পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এদিকে নসিমন ২৫ জুন চেয়ারম্যানকে তালাক প্রদান করে ২৬ জুন কনকদিয়া বিবাহ রেজিষ্ট্রোরের মাধ্যমে প্রেমিক রমজানের সাথে তৃতীয় বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়। এ বিষয়ে নসিমন তিন বিয়ের কথা স্বীকার করে বলেন, তার বিয়ের বয়স হয়েছে। সে রমজানকে ভালবেসেছে , তাকে পেয়েছি। এখন তার সাথই থাকব। বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আল মামুন বলেন, এ ঘটনায় মান্যবর হাইকার্ট রুল জারী করেছেন এবং পিবিআইকে তদন্তের দায়ত্ব দেয়া হয়েছে। তাই প্রশাসনের পক্ষ থেকে নসিমনের নিরাপত্তার জন্য পুলিশের নজরদারী রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে উচ্চ আদালতের কয়েকটি নির্দেশনা রয়েছে। নসিমনের একাধিক বিয়ে এবং একাধিক জন্ম নিবন্ধন নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে নানা প্রশ্নের উদয় হচ্ছে।

Previous articleনোয়াখালীতে পানিতে ডুবে ৪ শিশুর মৃত্যু
Next articleতাহিরপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নারীর মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।