বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ও চরক্লার্ক ইউনিয়নে পুকুরের পানিতে ডুবে এবং সদর উপজেলার হরিনারায়ণপুরে সেফটি ট্যাংকের পানিতে ডুবে ১শিশুসহ মোট ৪ শিশু মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় পরিবার গুলো শোকের ছায়া নেমে আসে।
মঙ্গলবার (২৯ জুন) দুপুরের দিকে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে ৪ শিশুকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত শিশুরা হলো, সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের চরকাজী মোখলেছ গ্রামের হোরন মিয়ার ছেলে আফসার হোসেন,ও একই গ্রামের মো.মিলনের ১৪মাস বয়সী মেয়ে ও কেরামতপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে আরমান হোসেন এবং হরিনারায়ণপুরের নাজির উদ্দিনের ছেলে মো.নাহিদ। তাদের তিন জনেরই বয়স প্রায় ৪ বছর।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে বাড়ির অন্য বাচ্চাদের সাথে বাড়ির আঙ্গিনায় খেলাধুলা করছিল আফসার। পরে পরিবারের লোকজন তাকে দেখতে না পেয়ে বিভিন্নস্থানে খোজাখুঁজি করে। একপর্যায়ে বাড়ির পুকুরের জাল ফেললে আফসারের মরদেহ জালে উঠে আসে। একই গ্রামের মিলনের ১৪ মাস বয়সী মেয়ে দুপুরের দিকে উঠান থেকে হামাগুড়ি দিয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে মারা যায়। এক পর্যায়ে পরিবারের সদস্যরা ঘরের পাশের পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। অপরদিকে, দুপুরে কেরামতপুর গ্রামের জাহাঙ্গীরের ছেলে আরমানকে বাড়ীর কোথাও দেখতে না পেয়ে খোজাখুঁজি করে পরিবারের লোকজন। এসময় বাড়ির পুকুরের পানিতে আরমানকে ভাসমান অবস্থায় দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে তারা।

অন্যদিকে,সদর উপজেলার হরিনারায়ণপুরের মো.নাজির উদ্দিনের ছেলে মো.নাহিদ বাড়ির সামনে খেলাধুলা করছিল। সেখানে নির্মানাধীন পানির ট্যাংকে বৃষ্টির পানি জমা থাকায় সেখানে পড়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সাব্বির আহমেদ পানিতে পড়ে ৩টি শিশুর মৃত্যুও বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

Previous articleঈশ্বরদী বিএসআরআই উচ্চফলনশীল ৪৮ আখ জাত অবমুক্ত করেছে
Next articleবাউফলে আলোচিত সেই কিশোরী এখন তিন নম্বর স্বামীর ঘরে: বয়স নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।