বাবুল আকতার: উন্নত বিশ্বের উন্নত দেশে আমরা সাপাহার উপজেলাবাসী অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছি। বর্তমান সময়ে দেশের প্রতিটি শহর বন্দর, গ্রাম গঞ্জে সড়ক যোগাযোগ ব্যাবস্থার উন্নয়ন হলেও সীমান্তবর্তি সাপাহার উপজেলার গ্রামীন সড়ক ও রাস্তাঘাট গুলো এখনও অবহেলিত রয়েছে । অবহেলিত এই রাস্তার সংবাদ বেশ কয়েকবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ পেলেও কর্তৃপক্ষ নজরদারী না করায় এখনও অবহেলিত রয়ে গেছে রাস্তাটি। এর জলন্ত প্রমান সাপাহার সদর ইউনিয়নের বাসুল ডাঙ্গা গ্রামের রাস্তাটি। তাই এই জনপদের রাস্তাটি নিয়ে এখন জনদুর্ভোগ চরমে উঠেছে। উপজেলা সদরের এই এলাকার অনেকাংশ জুড়ে রয়েছে হাজার হাজার বিঘা আমের বাগান। প্রতিবছর এখানকার আমচাষীরা হাজারো কষ্টের মধ্যে তাদের উৎপাদিত আম বাগান থেকে সংগ্রহ করে উপজেলা সদরের আমবাজারে আনেন। ইতোমধ্যেই সাপাহার উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের অধিকাংশ রাস্তাঘাটই পাকাকরণ হয়েছে কিন্তু দীর্ঘ দিন ধরে এই রাস্তাটি অবহেলীত অবস্থায় থাকলেও যেন দেখার কেউ নেই। বিগতবছর গুলোতে বার বার ঠিক একই সময়ে এই রাস্তার বর্ণনা দিয়ে বিভিন্ন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রচারিত হলে সদসর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আকবর আলী ও উপজেলা প্রোকৌশ দপ্তরের পক্ষ থেকে একটু নড়ে চড়ে বসলেও কালের বিবর্তনে তা আবার হারিয়ে গেছে। সাপাহার সদর ইউনিয়নের পিছলডাঙ্গা, নাওয়াডাঙ্গা, সিংগাহার, শাহাবাজপুর, মধ্যপাড়া, মলপাড়া, পানিতড় সহ প্রায় ৮/১০টি গ্রামের লোকজন চলাচল করে থাকে ওই রাস্তা দিয়ে। রাস্তার কারণে ওই এলাকার আমচাষীদের লভ্যাংশের একাংশ অর্থ খরচ হয়ে থাকে তাদের পরিবনে। রাস্তার অবস্থা দেখে কোন পরিবহন ওই রাস্তায় চলতে চায়না তাই পরিহন ভাড়ার কয়েক গুন অর্থ দিয়ে ওই এলাকা থেকে আম উপজেলা সদরের বাজারে আনতে হয়। বর্তমানে সাপাহার উপজেলা সদরের সদর ইউনিয়নের বাসুলডাঙ্গা পাকা রাস্তা হতে পিছলডাঙ্গা প্রায় ২কিলোমিটার ওই রাস্তাটিদ্রুত গতিতে পাকা করণের জন্য এলাকার জনসাধারণ সরকার বাহাদুরের খাদ্যমন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Previous articleভূঞাপুরে প্রতারণা করে উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র
Next articleসপরিবারে করোনায় আক্রান্ত নোয়াখালীর পুলিশ সুপার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।