বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ জায়গা সম্পত্তির বিরোধের জের ধরে এক গৃহবধূর মাথা ফাটিয়ে উল্টো প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করতে গিয়ে চার আসামি গ্রেফতার হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সন্ধ্যায় বেগমগঞ্জ থানার গেইটে এই ঘটনা ঘটে।

আটকৃতরা হলো, বেগমগঞ্জ উপজেলার ১২নং কুতুবপুর ইউনিয়নের আব্দুল্যাহপুর গ্রামের মফজল মিয়া বাড়ির মৃত আর্শাদ আলীর ছেলে আবদুল খালেক (৫৫),আবদুল মতিন (৬০), আবুল হাসেমের ছেলে মো.দুলাল (৪০) ও আবদুল খালেকের ছেলে নজরুল ইসলাম (৩৫)।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃতরা পারিবারিক সম্পত্তির বিরোধের জের ধরে একই বাড়ির গৃহবধূ বিবি মরিয়মকে (৪৫) পিটিয়ে মাথা পাটিয়ে দেয়। এরপর তারা প্রতিক্ষপের মামলার কাউন্টারে পাল্টা মামলা করতে থানায় আসে। সেই সময় তাদেরকে থানার গেইট থেকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে, এ ঘটনায় এইক দিন দুপুরে তাদের বিরুদ্ধে হামলার শিকার গৃহবধূর ছেলে তানভীর আহাম্মদ বাদী হয়ে নয় জনের নাম উল্লেখ করে ৫-৬জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা দায়ের করেন। শুক্রবার সকালে অভিযুক্ত আসামিদের ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

মামলা ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (৩০ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের আব্দুল্যাপুর গ্রামের মফজল মিয়ার বাড়ির ব্যাংকার মো.ইউছুফের স্ত্রীকে ঘরে ঢুকে তার ফুফাতো ভাই ও তার ছেলেরা লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মাথা পাটিয়ে দেয়। এ সময় তারা তাদের বসত ঘরেও ব্যাপক ভাংচুর চালায়। সম্পত্তি নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটে। এরপর তারা ওই গৃহবধূকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিতেও বাধা দেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

Previous articleদেশে করোনায় একদিনে আরও ১৩২ মৃত্যু, শনাক্ত ৮৪৮৩
Next articleবেগমগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষণকারীকে ছেড়ে দেওয়ার ৭দিন পর ফের আটক করল পুলিশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।