বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজধানীর গুলশানের নিকেতনে বাসা থেকে ফারিয়া হায়দার (২১) নামের এক নারী মেডিকেল শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ শনিবার সকালে ফারিয়াকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরিবার জানিয়েছে, ফারিয়া আত্মহত্যা করেছেন। তবে কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন সে বিষয়ে কিছু জানাতে পারেনি পরিবার।

ফারিয়া মালয়েশিয়ার একটি মেডিকেল কলেজে প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। করোনার কারণে তিনি দেশে অবস্থান করছিলেন। বাসায় থেকে তিনি অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতেন।

ফারিয়ার বাবা আলম হায়দার গণমাধ্যমকে জানান, তার মেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে তিনি এর কারণ জানাননি।

তিনি আরও বলেন, গতকাল শুক্রবার রাতের খাবারের পর ঘুমিয়ে পড়েন ফারিয়া। সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি দেখতে পান, তার মেয়ে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছেন। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট থানাকে এরই মধ্যে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

Previous articleভারতে ৯৯% মৃত্যু ঠেকাচ্ছে টিকা: গবেষণা
Next articleগ্রাহকদের কাছ থেকে ইভ্যালির নেয়ার টাকা ‘হদিস’ মিলছে না
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।