বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মাকে মারধরের অভিযোগে পালক ছেলে সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো, বসুরহাট পৌরসভা ৭নম্বর ওয়ার্ডের মো.রুবেল (২০) একই ওয়ার্ডের সিরাজ উল্যাহর ছেলে সালাউদ্দিন (২২) মো, ইউসুফের ছেলে মো.ইউনুস (২১)।

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আটককৃতদের বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গতকাল শনিবার রাত ১টার দিকে উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৭নম্বর ওয়ার্ডের জমিন মাঝি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ভুক্তভোগী পারুল আক্তার (৫০) ওই বাড়ির মকবুল আহমেদের স্ত্রী। রুবেল শনিবার রাতে রুবেল তার মায়ের কাছে সৌকেচের চাবি চাই। এ সময় তার মা চাবি দিতে অস্বীকার করলে সে মাকে দরজার কাঠের দুর দিয়ে মারধর করে। একপর্যায়ে ঘরে থাকা ধারালো বটি দিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা ভুক্তভোগীকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত মো.রুবেলকে (২০) আটক করে এবং রুবেল এর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ঘটনার সাথে জড়িত আরও দুই জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুদ্দিন আনোয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এই ঘটনায় ভুক্তভোগীর স্বামী মকবুল আহমেদ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় আটককৃত আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Previous articleপোলের পাশে মিলল কাপড়ে মোড়ানো নবজাতকের মরদেহ
Next articleআলীবাবা থিমপার্ক ঘিরে উত্তরের উন্নয়ন করা হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।