অতুল পাল: বাউফলে দীর্ঘদিন পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি) না থাকায় মহাদুর্ভোগে পড়েছেন সাধারন মানুষ। শিক্ষার্থীসহ সাধারন মানুষের জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন, জমির নামজারি, মিউটেশন ইত্যাদি দাপ্তরিক কাজের শত শত ফাইল জমা হয়ে পড়ে রয়েছে।

উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ এই দু’জন কর্মকর্তা না থাকায় মানুষের ভোগান্তি ছাড়াও সরকার রাজস্ব থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ১২ জুলাই বাউফলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) আনিচুর রহমান বালি বদলি হয়ে যান। তার পরিবর্তে এখনো কাউকে পোস্টিং দেয়া হয়নি। এরফলে মিউটেশন, নামজারি, দাখিলা ও মিসকেচগুলোর নিষ্পতি বন্ধ হয়ে রয়েছে। অফিস ষূত্র জানায়, নামজারির জন্য ইতোমধ্যেই প্রায় এক হাজার ফাইল জমা হয়েছে। এগুলো বন্ধ থাকায় সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে দলিল রেজিষ্ট্রিও কমে গেছে। যার কারণে সরকারের রাজস্ব আদায় কমে গেছে। ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন সাধারন মানুষ। এদিকে গত ৭ সেপ্টেম্বর বাউফলের উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেন পদোন্নতি জনিত কারণে বদলি হয়ে যান। তার পরিবর্তে এখনো কাউকে পোস্টিং দেয়া হয়নি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার না থাকায় ১৫টি ইউনিয়নের জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনসহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে। পাশ্ববর্তী দশমিনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সাময়িক দায়িত্ব দেয়া হলেও তিনি সপ্তাহে তিনদিন বাউফলে অফিস করেন। কিন্তু অর্থ সংক্রান্ত কোন ফাইলপত্রে স্বাক্ষর করেন না। এরফলে উপজেলা পরিষদের কাজকর্ম, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ফাইলপত্রসহ নানাবিধ প্রশাসনিক কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে। ভূক্তভোগীরা এই জটিলতা নিরসনে বাউফলে দ্রুত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিয়োগের অনুরোধ জানিয়েছেন।

Previous articleসৈয়দপুর ও কক্সবাজার সরাসরি বিমান চালু
Next articleমুলাদীতে মা ইলিশ নিধনে জেলেদের মহোৎসব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।