ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর (আদিবাসী) এক শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের একজন বিষ পানে আত্মহত্যা ও আরেকজন বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মারা গেছে। গোমস্তাপুর উপজেলার পার্বতীপুর ইউনিয়নের দুটি গ্রামে শুক্রবার (০৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টায় ও শনিবার (০৯ অক্টোবর) সকাল ১১টায় তারা নিহত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোমস্তাপুর থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) দিলীপ কুমার দাস।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার (০৯ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার পার্বতীপুর ইউনিয়নের বসনইল-গঙ্গাধরা এলাকার বাবুল খালকোর ছেলে সৃষ্টি খালকো (১১) বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুবরণ করে। বাবার ঘরে বৈদ্যুতিক ফ্যানের প্লাগ লাগানোর সময় সুইচ বোর্ডের ছেড়া তারের হাত দিলে বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।
এদিকে, পারিবারিক কলহের জেরে শুক্রবার (০৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কীটনাশক বিষ পান করে মারা যায় গোমস্তাপুর উপজেলার পার্বতীপুর ইউনিয়নের ভাটখৈর-ঠেকাপাড়ার মৃত গোবিন্দ উরাঁওয়ের ছেলে পরিমল উরাঁও (২৭)। সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিষ পান করার পর পরিবারের লোকজন গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।
গোমস্তাপুর থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) দিলীপ কুমার দাস শনিবার বিকেল ৫টার দিকে জানান, দুটি ঘটনায় থানায় পৃথক অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে পরিমল উরাঁওয়ের লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। এদিকে শিশু সৃষ্টি খালকোর লাশ ময়না তদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের নিকট মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

Previous articleনোয়াখালীতে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ
Next articleমুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।