হুমায়ুন কবির: নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের নারীসহ ৪ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার (১৮অক্টোবর)উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের জুড়াইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের জুড়াইল গ্রামের মৃত লতিফ ফকিরের ছেলে
ফারুক ফকির (৫৫) ও তার স্ত্রী জোসনা আক্তার (৪৫) মেয়ে রুমা আক্তার(২৫) এবং মনি আক্তার (২৩)।

আহতদের মধ্যে ফারুক ফকিরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে গিয়েছেন বলে জানা যায়।

হাসপাতালে ভর্তি ফারুক ফকিরের ছেলে সোহেল রানা জানান, তার বাবা ফারুক ফকির সোমবার হাওর থেকে বাড়ি আসার পথে। একই গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য সালেক মিয়া। ফারুক ফকিরকে উদ্দেশ্য করে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ শুরু করেন। এসময় ফারুক ফকির প্রতিবাদ করলে। সালেক মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে,তার লোকজন নিয়ে বাড়ি ঘরে ঢুকে মারধর, হামলা,ভাংচুর,লুটপাট চালায়।

সোহেল রানা আরো জানান,এসময় তার বাবা ফারুক ফকির, মা জোসনা আক্তার, বোন রুমা আক্তার এবং মনি আক্তার আহত হয়। এঘটনার বিচার চেয়ে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন বলেও তিনি জানান।

এ বিষয়ে জানতে সাবেক ইউপি সদস্য সালেক মিয়ার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে, ফারুক ফকির যে অভিযোগ তুলছেন তা সম্পুর্ন মিথ্যা। তিনি ফারুক ফকিরকে উদ্দেশ্য করে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ বা বাড়ি ঘরে হামলা, মারধর,ভাংচুর করেননি সম্পুর্ন মিথ্যা।

এব্যাপারে কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহ নেওয়াজ জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনার স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে এখনও কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous articleচাঁপাইনবাবগঞ্জে পর্নোগ্রাফি সংরক্ষণ ও বিক্রির অভিযোগে গ্রেফতার ৫
Next articleনোয়াখালী জেলা বিএনপি ত্রাণ ও পুর্নবাসন সম্পাদককে বিএনপি থেকে বহিষ্কার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।