জয়নাল আবেদীন: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী রংপুর সিটি করপোরেশনের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ময়নাকুটি পরশুরাম এলাকার চিলারঝাড় গ্রামের রহিদুল ইসলাম রনি দীর্ঘদিন দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যানসারে চিকিৎসাধীন থেকে অবশেষে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করেছে।

রহিদুল ইসলাম রনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮- ২০১৯ শিক্ষাবর্ষের ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিম্যাল সাইন্সেস অনুষদের শিক্ষার্থী ছিলেন। সোমবার সকাল ১০টায় পরশুরামের চিলারঝাড় বাজার সংলগ্ন মাদরাসা মাঠে নামাজে জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়।কৃষক বাবা আবদুর রহমান ও গৃহিণী মা রওশন আরা দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে রনি ছিলেন সবার বড়। তার ছোট ভাই রওশন হাবিব এসএসসি পরীক্ষার্থী। আর একমাত্র বোন রুশতা পড়ছে দ্বিতীয় শ্রেণিতে।রহিদুল ইসলাম রনি এলাকার মানুষের কাছে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। ভিক্ষুকদের পুনর্বাসন, বেকারদের কর্মে উদ্বুদ্ধকরণ, তরুণদের খেলাধুলায় মনোযোগী করতে বেশ কিছু উদ্যোগ বাস্তবায়ন করেন। বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া রনি অন্যের কাছে ভিক্ষা না চাইতে ভিক্ষুকদের পরামর্শ দিতেন। কিছু ভিক্ষুককে কাজ ও অল্প পুঁজিতে ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যবস্থাও করে দিয়েছিলেন। ৬মাস আগে রনির ক্যানসার ধরা পড়ে। চিকিৎসকদের মতে তাঁর চিকিৎসার জন্য ৩০-৩৫ লাখ টাকা দরকার ছিল । কিছু অর্থসংগ্রহ কওে তাঁকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় । কিন্তু পরবর্তীতে অর্থ সংগ্রহ করতে না পারায় তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করানো হয় । রোববার বিকেলে রণি মৃত্যু বরণ করে । রনির মা রওশন আরা কাঁদতে কাঁদতে বলেন, অনেক কষ্ট করে ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া করাচ্ছি। রনি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ত। ওকে নিয়ে আমাদের অনেক স্বপ্ন ছিল। ছেলে বড় হয়ে দেশের জন্য, মানুষের জন্য কিছু করবে। কিন্তু আমাদের সেই ছেলে ক্যানসারে মারা গেল।

Previous articleচান্দিনায় ৪০ বোতল ফেনসিডিলসহ যুবক আটক
Next articleউল্লাপাড়ায় ভোট উৎসবে জমজমাট উপজেলা চত্বর
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।