স্বপন কুমার কুন্ডু: ‘রুশ ন্যাশনাল ইউনিটি ডে’ উদযাপন উপলক্ষ্যে ‘বিগ হিস্টোরী, বিগ এচিভমেন্ট, বিগ প্লান, বিগ ফিউচার’ শীর্ষক রুশ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাবনার রত্নদ্বীপ রিসোর্টে শনিবার (৬ নভেম্বর) রাতে পরিবেশিত হয়েছে রাশিয়ান শিল্পীদের মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ঈশ্বরদীর রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি কর্পোরেশন রসাটম এবং এর প্রকৌশল বিভাগ এটমস্ট্রয়এক্সপোর্ট এই বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

প্রতিবছর ৪ নভেম্বর রাশিয়ার উদ্যোগে নিজ দেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই দিনটি জাঁকজমকভাবে উদযাপিত হয়। এরই অংশ হিসেবে দিবসটি উদযাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়। উল্লেখ্য, আগামী বছরেই পূর্ণ হচ্ছে বাংলাদেশ-রুশ কুটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর।

অনুষ্ঠানে রাশিয়া থেকে আগত একটি জনপ্রিয় সাংস্কৃতিক দল ‘মস্কো কসাক গ্রুপ’ তাদের বর্ণাঢ্য নাচ-গানের মাধ্যমে উপস্থিত সকলকে মাতিয়ে রাখে। দলটির পরিবেশনায় রাশিয়ার কসাক অঞ্চলের অপূর্ব প্রকৃতি এবং এর জনগোষ্ঠীর ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি উপস্থাপিত হয়। পাবনা ও ঈশ্বরদীর জনপ্রতিনিধি, উচ্চপদস্থ সরকারী কর্মকর্তা, বিশিষ্ট সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিবর্গ এবং স্থানীয় গণমাধ্যম প্রতিনিধি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

প্রসঙ্গত: রাশিয়ার আর্থিক ও কারিগরী সহায়তায় পাবনা জেলার ঈশ্বরদীরতে নির্মীত হচ্ছে দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র-রূপপুর এনপিপি। প্রকল্পটির জেনারেল কন্ট্রাকটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে এটমস্ত্রয়এক্সপোর্ট। রূপপুর এনপিপিতে প্রায় সাড়ে তিন হাজার রুশ নাগরিক কাজ করছেন।

Previous articleকোম্পানীগঞ্জে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত
Next articleবেনাপোল পেট্রাপোলে অগ্নিকাণ্ডে তুলাসহ ১১টি ট্রাক পুড়ে ছাই
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।