বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় এবার কুমিল্লা সিটি কর্পোরশেনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর পিএস মঈনুদ্দিন আহমেদ বাবুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে রাঙামাটির সাজেকের একটি রিসোর্ট থেকে তাকে আটক করা হয়। পরে দুটি মণ্ডপে হামলা-ভাংচুরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রোববার দুপুরে তাকে কুমিল্লার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। সেখানে থেকে পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আনওয়ারুল আজিম।
ওসি জানান, ঘটনার এক দিন পর বাবু বাসায় তালা ঝুলিয়ে পরিবার নিয়ে আত্মগোপনে চলে যান। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় জেলা পুলিশ ও গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের দল তাকে সাজেক থেকে গ্রেপ্তারের পর কুমিল্লায় নিয়ে আসে। দুটি মণ্ডপে হামলা ও ভাংচুরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে আদালত সোপর্দ করা হয়। ঘটনার বিষয়ে রিমান্ডে এনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলেও জানিয়েছেন ওসি।

ডিবি পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ঘটনার এক দিন পর বাবু বাসায় তালা ঝুলিয়ে পরিবার নেয়ে প্রথমে ঢাকা এবং পরে গত সপ্তাহে রাঙামাটির সাজেকের খাসরান নামের একটি রিপোর্টে অবস্থান নেন। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাবুকে আটক করে কুমিল্লায় নিয়ে আসা হয়েছে।

পুলিশের একাধিক সূত্র জানায়, গত ১৩ অক্টোবর নানুয়াদিঘী এলাকায় অস্থায়ী পূজা মন্ডপে কোরআন উদ্ধারের পর সৃষ্ট উত্তেজনার সময় বেশ তৎপর ছিলেন বাবু। ভিডিও ফুটেজে হামলাকারীদের সাথে বাবুও ছিলেন। সিসিটিভি দেখে তাকে শনাক্ত করা হয়। পরে তাকে নানুয়া দীঘিরপাড় অস্থায়ী মণ্ডপ ও ঠাকুরপাড়া কালিগাছ তলা কালী মন্দিরে হামলা মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এর আগে বাবুর নগরীর মৌলভী পাড়ার বাসায় তালা দেখে তাকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা আটক করেছে এমন গুঞ্জন ছিল নগরীতে। কিন্তু পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার দায়িত্বশীল কেউ বাবুকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করেনি।

Previous articleনোয়াখালীতে ১৪ ইউপিতে নির্বাচন: আটক ২, অর্ধশতাধিক মোটরসাইকেল জব্দ
Next articleবিদ্রোহ দমনের নামে ১৯৭৭ সালে নির্বিচারে হত্যার ঘটনায় কমিশন করে জিয়ার ‘মরণোত্তর বিচার’ দাবি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।