ফেরদৌস আল: ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মো. হারুন অর রশিদ বলেছেন, সীমান্তে মাদক ও চোরাচালন বন্ধে সরকার জিরো ট্রলারেন্স ঘোষণা করেছেন, সেই হিসেবে পুলিশ কাজ করছে, সীমান্তে পুলিশ নিয়মিত টহল দিচ্ছে। পাশাপাশি চোরকারবারীদের ধরতে নিয়মিত পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

বুধবার ১৭ নভেম্বর শেরপুরের শ্রীবরদী থানা বার্ষিক পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব বলেন। তিনি আরও বলেন, মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার, এই লক্ষে আইজিপি মহোদয়ের
নির্দেশে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। এর মধ্যে অন্যতম হলো বিট পুলিশিং কার্যক্রম। এতে করে প্রতিটা বিটেই পুলিশ যাচ্ছে। কষ্ট করে মানুষকে থানায় আসতে বা কোন ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে না। পুলিশই জনগণের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে। আর এতে জনগণের সাথে পুলিশের সম্পর্ক আরও সুন্দর হচ্ছে। এছাড়া কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে জনগণের সাথে মিলেমিশে বিভিন্ন ধরণের টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হচ্ছে।

পরিশেষে সবাইকে মাদক ও চোরাচালান বন্ধে এগিয়ে আসতে হবে। সবাই এগিয়ে আসলে এই দেশটা সুন্দর ও সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ী সার্কেল) আফরোজা নাজনীন, ডিআইজি’র স্টাফ অফিসার এএসপি ইমরানুল ইসলাম, জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি রেজাউল করিম, শ্রীবরদী থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, রেঞ্জ অফিসের ইনপেক্টর (ক্রাইম) লুৎফুল কবিরসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা। পরে ডিআইজি, পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার থানা চত্বরে ফলের গাছ লাগান। প্রথমেই ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে ডিআইজি ও আমন্ত্রিত অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছা ও আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতিতে বরণ করে নেন।

Previous articleসবাই টাকা উপার্জন করে ট্যাক্স কতজন দেয়, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর
Next articleময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার ১৫
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।