বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ কে এম মাহবুবুল হককে গ্রেফতার করে রাজবাড়ী আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ছুটি চাওয়াকে কেন্দ্র করে ওই প্রধান শিক্ষকের হাতে নারী সহকারী শিক্ষক জুতাপেটা, চুল ধরে টানাটানিসহ মারধরের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রধান শিক্ষককে আদালতে পাঠানো হয়।

পাটকিয়া বাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সহকারী শিক্ষক নাসিমা খাতুন গত ৯ জানুয়ারি সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা শিক্ষা অফিসার, বালিয়াকান্দি থানাসহ বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ করেন।

তিনি অভিযোগে বলেন, গত ৬ জানুয়ারী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ কে এম মাহবুবুল হকের নিকট আমার সাবেক প্রধান শিক্ষক মুকুল কুমার সাহার বাবার শ্রাদ্ধ উপলক্ষে ৮ জানুয়ারি ১১টার সময় বিদ্যালয় ত্যাগ করার অনুমতি চান। সকাল ৯টার সময় বিদ্যালয়ে এসে প্রধান শিক্ষক এ কে এম মাহবুবুল হকের নিকট ১১টায় বিদ্যালয় ত্যাগ করার জন্য আবার অনুমতি প্রার্থনা। তিনি জানিয়ে দেন বেলা ১টার আগে বিদ্যালয় ত্যাগ করা যাবে না। গত বৃহস্পতিবারে বিষয়টি মৌখিকভাবে জানিয়েছেন মনে করিয়ে দিলে তিনি বলে তোমাকে কি জবাবদিহি করতে হবে। এই কথা বলে প্রধান শিক্ষক সহকারী শিক্ষককে চুলের মুঠি ধরে মাটিতে ফেলে দেয় এবং পায়ের জুতা খুলে এলোপাতাড়িভ মারধর করেন। এ সময় বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শিরিন সুলতানা ও পাটকিয়াবাড়ী দাখিল মাদরাসার পিওন এসে তাকে তার হাত থেকে উদ্ধার করেন।

তিনি বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান।

বালিয়াকান্দি থানার এস আই আসাদুজ্জামান রিপন প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বুধবার রাতে ওই শিক্ষিকা থানায় মামলা করেছেন। মামলার আসামি প্রধান শিক্ষক এ কে এম মাহবুবুল হককে বৃহস্পতিবার ১১টার দিকে গ্রেফতার করে রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Previous articleসংগীতশিল্পী আসিফের বিচার শুরু
Next articleসোনারগাঁওয়ের দুই যুবকসহ ৩ জনকে পিটিয়ে হত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।