বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে দুই শিশু ভাগনকে গলাকেটে হত‍্যা করেছে এক পাষণ্ড মামা। এ ঘটনায় হত্যাকারী মামাকে (২১) আটক করেছে পুলিশ। এছাড়াও আশঙ্কাজনক অবস্থায় অপর এক শিশুকে হাসপাতালে পাঠিয়েছে স্থানীয়রা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গৌরীপুর সার্কেল) শেখ মোস্তাফিজুর রহমান।

তিনি জানান, ইতোমধ্যে তাকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে বিস্তারিত জানা যাবে। এই লোমহর্ষক হত‍্যায় ব‍্যবহৃত দা উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে এই পুলিশ কর্মকর্তা আরো বলেন, হত‍্যাকাণ্ডের সময় পরিবারের অন‍্যান‍্য সদস‍্যরা রান্নাসহ গৃহস্থালি কাজে ব‍্যস্ত ছিল। এ সুযোগে ওই শিশুদের ঘরের ভেতর ডেকে এনে গলাকেটে বারান্দায় রেখে পালাতে চেষ্টা করে খুনি মাহাবুব। ঘটনা টের পেয়ে স্থানীয়রা তাকে আটক করে।

স্থানীয়রা জানায়, হত‍্যাকারী মাহাবুব উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের কাজির বলসা গ্রামের মৃত আব্দুস সালামের ছেলে। সাত ভাই-বোনের মধ‍্যে মাহাবুব চতুর্থ সন্তান।

হত‍্যকারী মাহাবুবের ছোটভাই সাদেকুর রহমান জানান, দাখিল পাশ করে মাহাবুব নান্দাইল উপজেলার একটি কওমি মাদরাসায় ভর্তি হয়েছিল। কিন্তু সেখানে সে পাগলের মত আচরণ করায় তাকে মাদরাসা থেকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

এরপর তাকে বেশ কয়কে বার ডাক্তারি ও কবিরাজি চিকিৎসা করানো হলেও ভালো হয়নি। সেই থেকে সে অসুস্থ অবস্থায় বাড়িতে অবস্থান করছে।

সাদেকুর আরো জানান, প্রায়ই সে বাড়ি থেকে এদিক-সেদিক চলে যেত। গতকালও সে বাড়িতে বের হয়ে রাতে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। তবে আজ দুপুর পৌনে ১২টার দিকে বাড়ী ফিরে আসে। এ সময় নিহত শিশু ভাগ্নিরা বাড়ির উঠানে খেলা করছিল। সেখান থেকে মাহাবুব তাদের ডেকে ঘরের ভেতর নিয়ে গিয়ে দা দিয়ে গলাকেটে তাদের হত্যা করে।

জানা গেছে, শিশু সায়মা (৫) ও তৃপ্তি (৪) প্রায় ৭-৮ দিন আগে মায়ের সাথে নানাবাড়ি বেড়াতে এসেছিল।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদির মিয়া জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং হত্যাকারী মাহবুবকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Previous articleসরকার কিছু নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি মনিটরিং করছে: প্রধানমন্ত্রী
Next articleগণটিকার দ্বিতীয় ডোজ ২৮ মার্চ, ৫ বছর বয়সীদের শিগগিরই
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।