আব্দুল লতিফ তালুকদার: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে এক পাগলা কুকুরের কামড়ে তিন গ্রামের নারী-পুরুষ ও শিশুসহ ১২ জন আহত হয়েছে। এছাড়া ৪টি গরু ও বেশ কয়েকটি ছাগলকেও কামড়ে আহত করে পাগলা কুকুরটি। গত রবিবার ও সোমবার (৭ মার্চ) উপজেলার ভাদুরীচর, সাফলকুড়া ও চরঅলোয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার সকালে ভাদুরীরচর মসজিদের মাইক দিয়ে মাইকিং করে পাগলা কুকুরটিকে মেরে ফেলে ক্ষুদ্ধ জনতা। আহতরা হলেন, সালমান (৬), আল আমিন (৭), লাবিব (৬), হামেলা বেগম (৫৫), লাইলী বেগম (৬০), শাহজাহান (৬০) ও ফরিদ (৬০)। বাকিদের পরিচয় জানা যায়নি। স্থানীয় ইউপি সদস্য মহির উদ্দিন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘কয়েকদিন ধরে কুকুটির কারণে মানুষ আতঙ্কিত। যখন তখন তেড়ে এসে কামড়াতে। গত দুই দিনে কমপক্ষে ১০ থেকে ১২ জনকে কামড়ায়। পরে সোমবার সকালে মসজিদের মাইক দিয়ে মাইকিং করে গ্রামের লোকজন জড়ো হয়ে পাগলা কুকুরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়। আহত লাইলী বেগম বলেন, ‘সোমবার ভোর সকালে রাস্তায় হাঁটতে বের হয়েছিলাম। হঠাৎ করে পেছন থেকে ওই পাগলা কুকুরটি আমার পায়ে কামড়ে দেয়। পরে হাসপাতালে গেলে ডাক্তার বলেন ভ্যাকসিন নেই। পরে হাসপাতালের পাশের একটি ফার্মেসী থেকে ৪৬০ টাকা ভ্যাকসিন কিনে নেই’।

এ ঘটনায় ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: আল মামুন বলেন, কুকুরের কামড়ে আহত লোকজন চিকিৎসা নিতে এসেছিল। আল-আমিন নামে এক শিশু আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ভূঞাপুর হাসপাতালে ভ্যাকসিন সরবরাহ না থাকায় বাকিদেরকে বাহিরে থেকে ভ্যাকসিন সংগ্রহের জন্য বলা হয়েছে। ক্যাপশন: পাগলা কুকুরটিকে ক্ষুদ্ধ জনতা মেরে ফেলে। ছবি- আহত শিশু লাবিব। ছবি- আব্দুল লতিফ তালুকদার।

Previous article৭ই মার্চ বাঙালি জাতির ইতিহাসে গৌরবের দিন: নূরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি
Next articleরংপুরে নানা আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।