বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রংপুরের কাউনিয়ায় সাইদুল নামের এক তরুণকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রতিবেশী এক দম্পতিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। পরকীয়া অথবা জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ওই ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমান জানান, উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের আজম খা গ্রামের অজিম উদ্দিনের ছেলে সাইদুল ইসলাম (২২) শুক্রবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেনি। খোঁজাখুঁজির পর শনিবার (২ এপ্রিল) বেলা ১১টায় প্রতিবেশি রফিকুলের বাড়ির উঠানে রক্ত দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় পরিবার ও স্থানীয়রা।

বেলা সাড়ে ১২টায় পুলিশ এসে রফিকুলের বাড়ির শোয়ার ঘর থেকে সাইদুলের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। সাইদুলকে ঘাড়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ওসি আরো জানান, এ ঘটনায় রফিকুল ও তার স্ত্রী বুলবুলি বেগমকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

প্রাথমিক তদন্ত থেকে পুলিশের ধারণা, রফিকুলের স্ত্রী বুলবুলির সাথে পরকীয়ার সম্পর্কের জেরে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। এছাড়াও ওই পরিবারের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

স্থানীয় টেপামধুপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় আমরা হতবাক হয়েছি। সাইদুলকে যেখাবে ঘাড়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে তা নৃশংস বর্বরতা। এ ঘটনার সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিচার দাবি করেছেন তিনি।

Previous articleমিল্কী হত্যার প্রতিশোধ নিতে টিপুকে হত্যা
Next articleসম্মিলিত প্রচেষ্টায় বেড়ে উঠুক অটিজম শিশুরা: প্রধানমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।