জি এম মিন্টু: ইসলামে জঙ্গীবাদের কোন স্থান নেই। জঙ্গীবাদ নিরসনে আলেম ওলামাদের একযোগে কাজ করতে হবে। আজ রবিবার মসজিদের ইমাম, খতিব ও আলেম ওলামাদের নিয়ে “সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠা, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ এবং সামাজিক সমস্যা নিরসন” শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অতিথিবৃন্দ এসব কথা বলেন।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিট্রেট কাজী মোঃ সায়েমুজ্জামান। ইসলামিক ফাউন্ডেশন যশোরের উপপরিচালক বিল্লাল বিন কাশেম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক দৈনিক কল্যানের সম্পাদক একরাম-উদ-দ্দৌলা, বিশেষ অতিথি রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক, প্রেসক্লাব যশোরের সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

কর্মশালায় যশোরের আটটি উপজেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও খতিবগণ অংশ নিয়ে তাদের মতামত ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিট্রেট কাজী মোঃ সায়েমুজ্জামান বলেন, ইসলাম ও জঙ্গীবাদ বিপরীতার্থক শব্দ। ইসলামের সাথে জঙ্গীবাদের কোন সম্পর্ক নেই।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক দৈনিক কল্যানের সম্পাদক একরাম-উদ-দ্দৌলা বলেন, শুদ্ধ সমাজ বিনির্মানে আলেম ওলামাদের মূখ্য ভূমিকা করতে পারেন এবং তা করছেন। সমাজে আজকে যে শান্তি স্থিতিশীলতা রয়েছে এতে ইমামাদের ভূমিকা আছে।

বিশেষ অতিথি রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উদাহরণ হচ্ছে মুসলিম পরিবারে আমার বড় হওয়া। এখনো আমার বড় করা পিতা মুসলিম তার নামে কোরবানীর ও রোজায় ইফতার করিয়ে যাচ্ছি। এটাই সব চেয়ে বড় সম্প্রদায়দিক বড় উদাহরণ যে আজ পর্যন্ত কেউ আমাকে এসব বিষয়ে কিছু বলেনি।

প্রেসক্লাব যশোরের সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান বলেন, জঙ্গীবাদ সারা বিশ্বেই একটি সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত। তাই এর মূল উৎপাটনে ইমাম ও খতিবদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

Previous articleবাবার কোলে শিশুকে হত্যা: অস্ত্রের যোগানদাতা গ্রেপ্তার
Next articleগাড়িতে বসে ভ্যানচালককে সিলেটের মেয়রের ‘বেতের বাড়ি’
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।