লিটন মাহমুদ: মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় গুলিবিনিময়, ককটেল বিস্ফোরণ ও ঘরবাড়ি ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটেছ। এতে পাঁচজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। আজ সোমবার ভোর ৬টার দিকে উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের মহেশপুর ও মাকহাটি এলাকায় এ সংঘর্ষ ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- স্থানীয় হানিফ মোল্লা (৩৮), কামাল(২৮), সাজেদা (৭৫), সেরাজল বেপারী(৬৫), জামাল হোসেন(১৬)। তাদের মধ্যে সেরাজল, হানিফ ও কামালকে গুরুতর অবস্থায় মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল থেকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান রিপন পাটোয়ারী ও সাবেক চেয়ারম্যান মোহসিনা হক কল্পনার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। রিপন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কল্পনা মহিলা বিষয়ক সম্পাদক। পূর্ববিরোধের জেরে সোমবার ভোর থেকে ইউনিয়নের মহেশপুর ও মাকহাটি এলাকায় কয়েকদফা সংঘর্ষে জড়ায় দুইপক্ষ। এ সময় ককটেল বিস্ফোরণ, গোলাগুলি ও ঘরবাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

এতে গুলিবিদ্ধ হন পাঁচজন। আহত হন আরও বেশ কয়েকজন।

মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি ডাক্তার কালাম জানান, পাঁচজনের শরীরের বিভিন্ন অংশ গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় তিনজনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকি দুজন হাসপাতালেই চিকিৎসা নিয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব খান বলেন, আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে জড়ায় দুইপক্ষ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠানো হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। বিশৃঙ্খলা এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Previous article১১৬ আলেমকে অপদস্ত করায় ‘ঘাদানিকে’র বিচার দাবিতে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবীদের বিক্ষোভ
Next articleরেমিট্যান্সের বিপরীতে নগদ সহায়তা পদ্ধতি সহজ করলো বাংলাদেশ ব্যাংক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।