মোঃ জালাল উদ্দিন: সারাদেশে বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে এসএসসি পরীক্ষা। অন্যান্য শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার কেন্দ্রে বসে পরীক্ষা দিলেও এবার এক শিক্ষার্থী মৌলভীবাজার জেলা কারাগার থেকে এসএসসি পরীক্ষা অংশগ্রহণ করেছে।

জানা যায়, শ্রীমঙ্গল উপজেলার আশিদ্রোণ ইউনিয়নের বাসিন্দা মোঃ হেলাল আহমেদের (১৭) বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। পরে মৌলভীবাজার নারী ও শিশু আদালতে জামিন চাইতে গেলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন। তখন সে এসএসসি পরীক্ষার্থী হিসেবে আদালতে পরীক্ষার ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য আবেদন জানায়। এরপর আদালত তাকে কারাগার থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার অনুমতি দেন।

মৌলভীবাজার জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফজলুর রহমান এর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বছর সুন্দর পরিবেশে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবার এক শিক্ষার্থী জেলা কারাগার থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে। আমরা জেনেছি সে গত বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর একটি মামলায় আদালতে জামিন চাইতে গেলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন। কিন্তু সে এসএসসি পরীক্ষার্থী হওয়ায় কারাগার থেকে তাকে পরীক্ষার দেওয়ার জন্য অনুমতি দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মৌলভীবাজার জেলা কারাগারের জেল সুপার আব্দুল কুদ্দুছ তিনি বলেন, মোঃ হেলাল আহমেদ (১৭) সে শ্রীমঙ্গল উপজেলার আছিদউল্ল্যা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং জেল সুপার জেলা প্রশাসক ও কন্ট্রোলার বরাবর একটি চিঠি লিখেন, এরপর বোর্ড কন্ট্রোলার থেকে পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হয়। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসন থেকে ওই শিক্ষার্থীর পরীক্ষায় গ্রহণের ব্যবস্থা করা হয়। মৌলভীবাজার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের আওতায় তাকে প্রশ্নপত্র সরবরাহ করে দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ১৪ সেপ্টেম্বর সে কারাগারে আসে। শ্রীমঙ্গল থানায় তার নামে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা রয়েছে। পরীক্ষার দিন তাকে সময়মতো বেলা ১১টায় প্রশ্ন দেওয়া হয়। প্রথমদিনের পরীক্ষা চলে দুই ঘণ্টা। পুরো দুই ঘণ্টা জেলে বসেই পরীক্ষা দেন হেলাল।
সে ভালভাবে পরীক্ষা দিয়েছে।

Previous articleএক ট্রলারে ধরা পড়ল ৫৯ মণ ইলিশ, বিক্রি ১৩ লাখে
Next articleনোয়াখালীতে ৭ জুয়াডি গ্রেফতার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।