জয়নাল আবেদীন: র‌্যাব-১৩’ র পৃথক অভিযানে শিশু কন্যাকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত পাষন্ড পিতাকে গ্রেফতার সহ ২শ ৯৬ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করেছে সেই সঙ্গে ২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ।

র‌্যাব জানায় ২০১৬ সালে ২২ মাস বয়সী নিজ শিশু কন্যাকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামী রংপুর কোতয়ালী থানার কিশামতবিষূ মানজাই এলাকার মোসলেম উদ্দিনের ছেলে মোঃ আলাল দুদু হত্যা কান্ডের বিচার চলাকালীন সময় আদালত থেকে জামিন নিয়ে বের হয়ে নিজ এলাকা ছেড়ে চট্টগ্রাম গিয়ে আত্মগোপন করে এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ধরা-ছোয়ার বাইরে চলে যায়।

এরপর গত ১৪ অক্টোবর সিপিসি- ২, হাটহাজারী ক্যাম্প, র‌্যাব-৭ এবং সিপিএসসি, র‌্যাব-১৩, রংপুর এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম মহানগরীর খুলশী থানাধীন পশ্চিম খুলশী, ০৩ নং রোড, আবাসিক এলাকা হতে উক্ত মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামীকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে উক্ত আসামী তারকন্যা সন্তানকে নিজ হাতে হত্যা করার বিষয়টি স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামী আলাল ও তার স্ত্রী চট্টগ্রামে একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন, সেই সূত্রে তারা চট্টগ্রামে বসবাস করতেন। তাদের ঘরে ২২ মাস বয়সী একটি কন্যা সন্তান ছিল। শিশুটি তার নানীর কাছে রংপুরে থাকত।

২০১৬ সালে ঈদে আলাল তার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুর বাড়ি রংপুরে বেড়াতে যায়। এ সময় একদিন দুপুরে মেয়েকে নিজের বাড়িতে বেড়ানোর কথা বলে বের হয় আলাল। বিকাল বেলা মেয়েকে নিয়ে ফিরে আসার কথা থাকলেও আলাল ফিরে না আসায় শিশুটির নানী মোবাইলে যোগাযোগ করলে সে কিছুক্ষণের মধে আসবে বলে জানায় এবং নাতনীর সাথে তাকে কথা বলিয়ে দেয়। পরে শিশুটির মামা শুভ তার মোবাইল থেকে আলালকে ফোন করলে ফোন রিসিভ করে উল্টা-পাল্টা কথা বলতে থাকে। আলালের অসংলগ্ন কথা শুনে নানী এবং মামা আলালের বাড়িতে গিয়ে তাকে না পেয়ে তার মা, বাবা, ভাই এবং ভাবীকে জিজ্ঞেস করলে তারাও আলালের ব্যাপারে কিছু বলতে পারে না। তার দুদিন পর রংপুর জেলার কোতয়ালী থানা পুলিশ তাজহাট এলাকায় কলা বাগানে একটি শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে। পরে শিশুটির মা, নানী এবং আত্মীয়- স্বজন গিয়ে মরদেহটি সনাক্ত করে। এ সময় শিশুটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে পোকা ধরা, গলায় একটি দাগ এবং কান ও নাক দিয়ে রক্ত বের হওয়ার দাগ ছিল। এ ঘটনায় শিশুটির নানী বাদী হয়ে রংপুর জেলার কোতয়ালী থানায় মোঃ আলাল দুদু (৩৪) এবং আরও ৫জনকে আসামী করে ।

এদিকে অপর এক অভিযানে রংপুর জেলার মিঠাপুকুর থানার কাশিপুর গ্রাম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ২শ৯৬ বোতল ফেন্সিডিল এবং ০১ টি মিনিট্রাক সহ ০২ জন মাদকব্যবসায়ী সুমন আহমেদ (ট্রাক চালক) মাঃ রাসেল ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ থানার কাঠালতলী গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসা বাদে গ্রেফতার কৃত মাদক ব্যবসায়ীদ্বয় মাদক ব্যবসার সাথে তাদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে। তাদের সাথে জড়িত অন্যান্য মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে গোপন অনুসন্ধান চলছে।

Previous articleপাঁচবিবিতে ট্রেনের ধাক্কায় যুবকের মৃত্যু
Next articleসমাবেশের নামে চাঁদাবাজি করছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।