ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জে আত্মহত্যা করে বাবার মৃত্যুর দুই বছর পর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে নবম শ্রেণির এক ছাত্র। সদর উপজেলার রানিহাটি এলাকায় এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। জানা যায়, শনিবার (১২ নভেম্বর) দিবাগত রাতের যেকোন সময় ওই ছাত্র আত্মহত্যা করে। পরে রবিবার (১৩ নভেম্বর) সকালে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম রকি (১৬) সদর উপজেলার রানিহাটি ইউনিয়নের ঘোড়াপাখিয়া-কুইটাপাড়া এলাকার মৃত গোলাম মোস্তফার ছেলে ও নবাবগঞ্জ সরকারি হরিমোহন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।
স্থানীয় বাসিন্দা, নিহতের স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সাইফুল ইসলাম রকির মা বাড়িতে ছিলোনা, তার নানীর বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলো। সেই সুযোগে আত্মহত্যা করে রকি। তবে কি কারণে আত্মহত্যা করেছে, সে বিষয়ে কিছুই জানা যায়নি। রবিবার সকালে রকির নিজ ঘরের তীরের সাথে তার মরদেহ ঝুলতে দেখে স্থানীয়রা। পরে থানায় খবর দিলে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত রকির প্রতিবেশী মনিরুল ইসলাম জানান, দুই বছর আগে রকির বাবা গোলাম মোস্তফা আত্মহত্যা করে মারা যায়। বাবার মৃত্যুর পর থেকেই রকি শোকে মানুসিক বিষণ্নতায় ভুগতো। এমনকি প্রলাপ করে, বাবার কবরে গিয়ে গড়াগড়ি করে কান্নাকাটি করত। রকি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল বলেও জানান তিনি।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) আলমগীর জাহান মুঠোফোনে বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। পুলিশ গিয়ে ওই স্কুল শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় আইনানুগ কার্যক্রম শেষে পরিবারের নিকট মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

Previous articleউল্লাপাড়ায় ফ্যানের বাতাসে ধান উড়ানো
Next articleসৌদি আরবের কাছে বাকিতে তেল চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।