শুক্রবার, এপ্রিল ১২, ২০২৪
Homeসারাবাংলাবাবার লাশ বাড়িতে খাটিয়ায় রেখে পরীক্ষা দেয়া সেই মিরাজ পেল জিপিএ-৫

বাবার লাশ বাড়িতে খাটিয়ায় রেখে পরীক্ষা দেয়া সেই মিরাজ পেল জিপিএ-৫

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাবার লাশ খাটিয়ায় রেখে পরীক্ষা দেয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার সেই মাহিদুল হোসেন খান মিরাজ জিপিএ-৫ পেয়েছে।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) প্রকাশ হওয়া মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলে এই তথ্য জানা যায়। এই তথ্য মিরাজের মামা আরিফুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।

মিরাজ আখাউড়া উপজেলার গ্রিন ভ্যালি স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক মরহুম মোতাহার হোসেন খানের ছেলে। সে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঐতিহ্যবাহী অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র।

তার মামা আরিফুল ইসলাম জানান, মিরাজ ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কাউতুলীতে তাদের বাড়িতে (মামা বাড়ি) থেকে শহরের অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতো। গত ২১ সেপ্টেম্বর তার বাবা মোতাহার হোসেন খান মারা যান। এ সময় মিরাজের এসএসসি পরীক্ষা চলছিল। আমার ভগ্নিপতি মারা যাওয়ার পর দিন ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে তার জানাজার সিদ্ধান্ত হয়। ওইদিন ছিল মিরাজের গণিত পরীক্ষা। সকালে খাটিয়াার উপর কাফনে মোড়ানো বাবার লাশ বাড়িতে রেখেই এসএসসির গণিত পরীক্ষা দেয় তার ভাগিনা মাহিদুল হোসেন খান (মিরাজ)।

এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দেবগ্রামে নিজ বাড়িতে থেকে পরদিনের গণিত পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল মিরাজ, তখনই তার বাবা মারা যায়। বাবার মৃত্যুতে মনকে কিছুতেই শান্ত করতে পারছিল না মিরাজ। সারারাত বাবার লাশের পাশে বসে দোয়া-দরুদ পড়েছে। এ অবস্থায় সকালে শহরে গিয়ে সে পরীক্ষা দিয়েছে। পরীক্ষা শেষে বাড়িতে ফিরে এসে বাবার জানাজায় অংশগ্রহণ করে, পরে লাশ দাফন করে।

মিরাজের মা তাসলিমা বেগম পরীক্ষায় ছেলের এই ফলাফলে আবেগাপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি ছেলের ফলাফলে সন্তুষ প্রকাশ করে বলেন, তার বাবার লাশ রেখে সে পরীক্ষা দিয়েও ভালো ফলাফল করেছে। আজ তার বাবা বেঁচে থাকলে সবচেয়ে বেশী আনন্দিত হতেন।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments