চামড়ার ষড়যন্ত্রকারীরা বেপরোয়া, সরকার ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থ : ড. ইব্রাহিম খালেদ

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ড. ইব্রাহিম খালেদ কোরবানির চামড়ার বাজার ধস নিয়ে গণমাধ্যমকে বলেছেন, চামড়া ব্যবসায়ীরা অতি বেপরোয়া। তাদের মধ্য থেকেই ষড়যন্ত্র হচ্ছে। ষড়যন্ত্র না হলে এভাবে দাম কমতে পারে না। সরকার দাম বেঁধে দিচ্ছে। অথচ সে দামেও কিনছে না। তার মানে এ শিল্পের ব্যবস্থাপনায় সরকার ব্যর্থ।

ইব্রাহিম খালেদ বলেন, ‘পরপর দুটি কোরবানি ঈদে চামড়ার বাজারে ধস। এটি তো এমনিতেই হতে পারে না। চামড়া শিল্প নিয়ে এর আগেও ষড়যন্ত্র হয়েছে। কিন্তু এমন বিপর্যয় দেখা যায়নি। ষড়যন্ত্রকারীরা বিশেষ সিন্ডিকেট তৈরির মাধ্যমে মানুষকে জিম্মি করেছে। এখানে সরকারও জিম্মি। অথচ সরকার চাইলে এর সমাধান টানতে পারত। সরকার জানার কথা, কারা এ বিপর্যয় ঘটিয়েছে। কারা এ ব্যবসায়ে অনৈতিক উপার্জন করেছে, তা খুঁজে বের করা সরকারের দায়িত্ব। কারণ চামড়া শিল্প রফতানি আয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে। এমন একটি বিশাল সেক্টর নিয়ে সরকারের অবহেলা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।’

চামড়া শিল্পের ভবিষ্যৎ নিয়ে এ অর্থনীতিবিদ মনে করেন, ‘কোরবানির চামড়ায় অসহায় মানুষের হক রয়েছে। গরিব মানুষ, এতিম খানার শিশুরা চামড়ার অর্থ পেয়ে থাকেন। অথচ এ গরিব মানুষদের পরিকল্পিতভাবে বঞ্চিত করা হলো। এটি তো গভীর ষড়যন্ত্র। এ ষড়যন্ত্র গোটা চামড়া শিল্পকে হুমকিতে ফেলেছে। সরকার দ্রুত ব্যবস্থা নিক। নইলে বড় ক্ষতি নিয়ে আসবে গুরুত্বপূর্ণ এ সেক্টরে।’