প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে উত্তাল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

মুখলেসুর রাহমান সুইট: কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) নবনিযুক্ত প্রক্টরকে অপসারণের দাবিতে ক্যাম্পাস অবরোধ করেছে ছাত্রলীগের বিদ্রোহী গ্রুপের নেতাকর্মীরা।
রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টায় প্রক্টর ড. মাহবুবর রহমানকে অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করে তারা। পরে কয়েক দফায় উপাচার্যের সাথে সাক্ষাৎ করে দাবি জানিয়ে কোন ফল না পাওয়ায় প্রশাসন ভবন অবরোধ করে তারা। শনিবার দাবি মেনে না নেওয়ায় রোববার আবারো আন্দোলনে নামেন তারা।

সূত্রে জানা যায়, গত ২১ সেপ্টেম্বর প্রক্টর হিসেবে তৃতীয় বারের মত দায়িত্ব গ্রহণ করে ইইই বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান। দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই তাঁকে অপসারণের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে ছাত্রলীগের বিদ্রোহী গ্রুপ। রোববার দুপুর থেকে দফায় দফায় উপাচার্যের সাথে সাক্ষাৎ করে দাবি জানালেও দাবি মানা হয়নি। পরে দুপুর পৌনে দুইটার দিকে আন্দোলনকারীরা ক্যাম্পাসের মূল ফটকে তালা দেয়।
তখন ক্যাম্পাস থেকে দুপুরের বাস ছেড়ে যেতে পারেনি। ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ শিক্ষক-শিক্ষর্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। পরে বিকাল সাড়ে ৪টায় আবারও উপাচার্যের সাথে সাক্ষাৎ করে সিদ্ধান্ত চায় আন্দোলনকারী। দাবি মেনে না নিলে তারা প্রশাসন ভবন ও ভিসির কার্যালয় অবরোধ করে।
এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা আজকের বাংলাদেশকে বলেন, ‘যিনি ছাত্রলীগের উপর গুলি চালানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন তাকে আমরা প্রক্টর হিসেবে চাই না। আমরা উপাচার্যের কাছে এই প্রক্টরকে অপসারণের দাবি জানিয়েছি। দাবি মেনে না নেয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।’
নবনিযুক্ত প্রক্টর ড. মাহবুবর রহমান আজকের বাংলাদেশকে বলেন, ‘আমি মাদকের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় আমার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছে তারা, তিনি ারো বলেন আমার বিরুদ্ধে যদি অভিযোগ তারা প্রমানিত করতে পারে তবে সব কাজ থেকে ইস্তফা দিবো।
উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, ‘আমরা একজন যোগ্য প্রক্টর খুজছি। নতুন করে যোগ্য কাউকে পেলে আমরা তাকে নিয়োগ দিব।’