বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ছাত্র আন্দোলনে উস্কানি দেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ জন শিক্ষককে চূড়ান্তভাবে চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়েছে। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ওই ৩ জন শিক্ষক হলেন বাংলা ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক আবুল ফজল, বাংলা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক শাকিলা আলম এবং ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক হৈমন্তী শুক্লা কাবেরী।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত বছর ১ ও ২ জানুয়ারি বিভিন্ন দাবিতে ছাত্ররা আন্দোলন করে। আন্দোলন চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ৩ শিক্ষক বিভিন্ন রকমের মিথ্যা তথ্য প্রদান, কুৎসা রটানো ও উসকানিমূলক তথ্য প্রচার করেছিলেন। শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কাঠামো থাকা সত্ত্বেও তারা নিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করেন।

এদিকে, নিজেদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে আমরণ অনশন অব্যাহত রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ ছাত্র। গত ১৯ জানুয়ারি সন্ধ্যায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে তারা অনশন শুরু করেছিলেন। অসুস্থ্য হয়ে পড়া এই অনশনরত শিক্ষার্থীদের দেয়া হচ্ছে স্যালাইন।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ছাত্র আন্দোলন চলাকালে ওই ২ ছাত্র ২ জন শিক্ষকের পথ আটকে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। সে কারণে ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের চতুর্থ বর্ষের ইমামুল ইসলামকে ২ বছর এবং বাংলা ডিসিপ্লিনের তৃতীয় বর্ষের মোবারক হোসেন নোমানকে ১ বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিস্কার করা হয়।