তাসদিকুল হাসান,জবি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০জন শিক্ষক ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি’ বিষয়ে বিশেষ গবেষণা প্রকল্প অনুদানের জন্য মনোনীত হয়েছেন। মনোনীত শিক্ষকরা তাদের প্রকল্প অনুযায়ী দুই থেকে সর্বোচ্চ পাচ লাখ টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা পাবেন।

২৩ নভেম্বর রোজ বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ শাজাহান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে গত ১৫ নভেম্বর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব বিদ্যুৎ চন্দ্র আইচ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। বিজ্ঞপ্তিতে ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কর্মসূচি’র খাত থেকে মোট ৬৮২টি গবেষণা প্রকল্পের অনুদানে নির্বাচিত এক হাজার ৩৬৪ জন গবেষকের তালিকা প্রকাশ করা হয়। এতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৫টি প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন বিভাগের মোট ৩০জন শিক্ষক বায়োলজিক্যাল সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড অ্যাপ্লাইড সায়েন্স, ইন্টার-ডিসিপ্লিনারি, মেডিকেল সায়েন্স, ফিজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপসহ ছয়টি গ্রুপে গবেষণা অনুদানের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনুদান পাওয়া শিক্ষকরা হলেন- রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান, সহযোগী অধ্যাপক ড. নাফিস আহমেদ, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ লোকমান হোসেন, অধ্যাপক ড. আবুল কালাম মোঃ লুৎফর রহমান, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জমির হোসেন, সহকারী অধ্যাপক মোঃ ইলিয়াছ, সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ দেলোয়ার হোসেন, সহকারী অধ্যাপক আব্দুল আউয়াল, অধ্যাপক মোহাম্মদ সৈয়দ আলম, সহযোগী অধ্যাপক ড. জয়ন্ত কুমার সাহা, অধ্যাপক ড. আবদুস সামাদ, অধ্যাপক ড. মোঃ শাজাহান। গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ সারোয়ার আলম, সহকারী অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন, অধ্যাপক ড. রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, সহকারী অধ্যাপক গৌতম কুমার সাহা, সহযোগী অধ্যাপক ড. সিদ্ধার্থ ভৌমিক, সহযোগী অধ্যাপক ড. বিষ্ণু পদ ঘোষ। ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ মনিরুজ্জামান, সহকারী অধ্যাপক নিউটন হাওলাদার।

এছাড়া প্রাণিবিদ্যা বিভাগ থেকে সহযোগী অধ্যাপক ড. বিপ্লব কুমার মন্ডল, সহযোগী অধ্যাপক ড. মোসা. উম্মে হাবিবা খাতুন, সহযোগী অধ্যাপক ড. শায়ের মাহমুদ ইবনে আলম, প্রভাষক শিল্পী সাহা, সহযোগী অধ্যাপক ড. তনিমা মুস্তাফা, সহযোগী অধ্যাপক ড. সুমাইয়া আহমেদ, অধ্যাপক দোলন রায়, সহযোগী অধ্যাপক ড. রুমানা তাছমীন এবং উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. কাজী নাহিদা বেগম, সহকারী অধ্যাপক মেঘলা সাহা পিংকি মনোনীত হয়েছেন।

মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছর থেকে বিজ্ঞান বিষয়ক গবেষণার জন্য বিশেষ গবেষণা অনুদান কার্যক্রম শুরু করা হয়। এ কার্যক্রম সুষ্ঠু ও স্বচ্ছভাবে মূল্যায়ন করার জন্য নীতিমালা অনুযায়ী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, অধ্যাপক, গবেষণা প্রতিষ্ঠানের বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ও গবেষকদের সমন্বয়ে গঠিত পিয়ার রিভিউ কমিটির মাধ্যমে গবেষক ও বিজ্ঞানীদের গবেষণা প্রস্তাবসমূহ যাচাই-বাছাইপূর্বক বিশেষ গবেষণা অনুদান প্রদান করা হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং মনোনীত গবেষক অধ্যাপক ড. মোঃ শাজাহান বলেন, গবেষণায় এই অনুদান গবেষণা কাজকে আরো বেগবান করবে। আমাদের শিক্ষকরা সামনে যেন আরো বেশি বেশি এরকম গবেষণার জন্য মনোনীত হন সেই প্রত্যাশা করি।

Previous articleশাহজাদপুরে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ
Next articleকোম্পানীগঞ্জে প্রতিদিন জলদস্যু-ভূমিদস্যুরা খাস জমি বিক্রি করছে: উপজেলা চেয়ারম্যান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।