বাংলাদেশ ডেস্ক: হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা জেমস ফ্র্যাঙ্কো। তার বিরুদ্ধে নিজের প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগ ওঠে। তিনি অভিযোগগুলো স্বীকার করে নিয়েছেন।

২০১৮ সালে পাঁচ নারী জেমসের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তোলেন। তাদের মধ্যে চারজনই ছিলেন জেমসের অভিনয়শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রী।

২০১৯ সালে সেই ছাত্রীদের দু’জন জেমসের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেন। লিখিত অভিযোগে তারা দাবি করেন, জেমস ও তার সহকারীরা ছাত্রীদের অভিনয় শেখানোর নামে ‘সুযোগ’ নেওয়ার জন্যই ওই প্রতিষ্ঠানটি তৈরি করেছেন।

এবার সেই অভিযোগ মেনে নিয়ে একটি পডকাস্টে অংশ নিয়ে জেমস বলেন, ‘আমি আমার ছাত্রীদের সঙ্গে সহবাস করেছি, সে কথা স্বীকার করে নিচ্ছি। তবে যারা অভিযোগ করেছেন, তাদের ক্লাসের কারও সঙ্গে আমি শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হইনি। কিন্তু যত দিন অভিনয় শিখিয়েছি, তত দিন অনেক ছাত্রীর সঙ্গেই যৌন সম্পর্ক করেছি। এটা করা উচিত হয়নি।’

জেমসের দাবি, তিনি ছাত্রীদের সম্মতিক্রমেই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতেন। কারো অমতে এ কাজ করেননি কখনো। তবে সম্মতি থাকলেও এমন কাজের জন্য অনুতপ্ত তিনি।

জেমস বলেন, ‘নেশায় হয়তো অন্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। মানুষের অনুভূতিগুলোকেও আর দেখতে পাচ্ছিলাম না।’

ছাত্রীদের শারীরিক হেনস্তার বিষয়টি স্বীকার করার পাশাপাশি জেমস ফ্রাঙ্কো জানিয়েছেন, চলতি বছরই তিনি ২ দশমিক ২ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার মাধ্যমে এই মামলার সুরাহা করবেন।

উল্লেখ্য, জেমস ফ্রাঙ্কো অভিনয়ের পাশাপাশি নির্মাতা ও লেখক হিসেবেও পরিচিত। তিনি সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কারেও মনোনয়ন পেয়েছিলেন। ‘স্পাইডার-ম্যান ট্রিলজি’, ‘মিল্ক’, ‘রাইজ অব প্ল্যানেট অব দ্য অ্যাপস’, ‘স্প্রিং ব্রেকারস’ ইত্যাদি সিনেমায় তার অভিনয় উল্লেখযোগ্য।

Previous articleদেশের অগ্রগতি জনগণের কাছে তুলে ধরা গণমাধ্যমের নৈতিক দায়িত্ব: তথ্যমন্ত্রী
Next articleবীর মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্চিতের প্রতিবাদে আ.লীগ নেতার শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।