সরকারি ওষুধ বাড়ি নেওয়ার পথে ধরা খেলেন নার্স

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ভোলায় হাসপাতাল থেকে সরকারি ওষুধ বাড়ি নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়দের কাছে ধরা খেয়েছেন তৃপ্তি রায় নামের এক নার্স। গতকাল রোববার দুপুরে হাসপাতাল থেকে বিভিন্ন ধরনের ৪৮ পাতা ওষুধ বাড়ি নিয়ে যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।

তৃপ্তি রায় জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে কর্মরত আছেন।

স্থানীয়রা জানান, তৃপ্তি রায় দীর্ঘদিন ধরে সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে কর্মরত থাকায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সকলের সঙ্গে তার সুসর্ম্পক তৈরি হয়। এই সুবাদে তিনি বিভিন্ন সময় হাসপাতাল থেকে অবৈধভাবে ওষুধ বাড়ি নিয়ে যেতেন। একইভাবে রোববার হাসপাতালের বহির্বিভাগের ওষুধ সরবরাহ কেন্দ্র থেকে ৪৮ পাতা ওষুধ নিয়ে তিনি বাড়ি যাচ্ছিলেন। এ সময় পথে স্তারা তাকে ধরে ফেলেন।

এত ওষুধ কোথায় ও কেন নিয়ে যাচ্ছেন প্রশ্ন করলে তৃপ্তি রায় কোনো উত্তর না দিয়ে দ্রুত আবার হাসপাতালে চলে যান। পরে স্থানীয়রা পিছু পিছু হাসপাতালের ওই কক্ষে যান। এ সময় তারা তৃপ্তির হাতে থাকা বক্স ও ইউনিফর্মের পকেট থেকে বিভিন্ন ধরনের ৪৮ পাতা ওষুধ বের করেন। তৃপ্তি রায়ের এ ওষুধ বাড়ি নেওয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নার্স তৃপ্তি রানী রায় জানান, তিনি এসব ওষুধ সরকারি নিয়ম অনুযায়ী টিকেটের মাধ্যমে তার আত্মীয়-স্বজনদের জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন। প্রয়োজনে মাঝে মাঝেই এভাবে ওষুধ নিয়ে যান বলে স্বীকার করেন তিনি।

বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তপতি চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিষয়টি আমি লোকের মুখে শুনেছি। তিনি যদি এ ধরনের কাজ করে থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান ভোলার সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী।

Previous articleআটকে পড়া ১২৭ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে দিলো আরব আমিরাত
Next articleসিঙ্গাপুরে ৪ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।