শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
Homeস্বাস্থ্য সেবাঠিকাদারের কাছ থেকে শতভাগ কাজ ঝুঝে নিতে হবে, তাদেরকে প্রশ্রয় দেয়া যাবে...

ঠিকাদারের কাছ থেকে শতভাগ কাজ ঝুঝে নিতে হবে, তাদেরকে প্রশ্রয় দেয়া যাবে নাঃ স্বাস্থ্য সচিব

জয়নাল আবেদীনঃ স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাস্থ্য খাতে খুব আন্তরিক। মন্ত্রনালয় চাওয়া মাত্র তিনি সব কিছু দিচ্ছেন। আগামী ৪১ সালের মধ্যে স্মাট বাংলাদেশ গড়তে সরকার পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তাই আমাদের স্মাট কাজ করতে হবে। ১৭ কোটি লোকের জন্য বাংলাদেশে কতজন ডাক্তার রয়েছেন। কতজন মানুষ ডাক্তারে চান্স পাচ্ছেন বা পেয়েছেন। আপনারা আমরা পেয়েছি। সরকারি চাকরিও করছি। তাই আমাদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। চিকিৎসা খাতকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ঠিকাদারের কাছ থেকে শতভাগ কাজ ঝুঝে নিতে হবে। তাদেরকে প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। আবার নিজেদেরও বিক্রি করা যাবে না।

গতকাল শনিবার সকালে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক মিলনায়তনে আর্থিক ব্যবস্থাপনা ও অডিট ইউনিট, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের আয়োজনে স্বাস্থ্য খাতে অর্থ ও ক্রয় ব্যবস্থাপনা শীর্ষক তিনদিন ব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি ।

সচিব বলেন রংপুর আমার এলাকা, আমি রংপুরেই বেড়ে উঠেছি, তাই রংপুরকে আমি আলাদা চোখে দেখি। আপনাদের প্রতি অনুরোধ আপনারা কাজে কোন ঘাটতি রাখবেন না। আমার কাছে যেনো কোন প্রকার অভিযোগ না আসে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দীর্ঘ সময় কাজ করার কারণে এমপি, মন্ত্রী থেকে শুরু করে সকলের সাথে আমার যোগাযোগ হয়। তারা যেনো আমার কাছে কোনো অভিযোগ না করে। ইতিপূর্বে আমি অনেককে সাময়িক বরখাস্তসহ পূর্ণ বরখাস্ত করেছি। সেটা যেনো এখানে করতে না হয়। তাই সকলকে আন্তরিকতার সহিত কাজ করার আহবান করছি।

স্বাস্থ্য সচিব আরো বলেন, বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে কথা এসেছে গাড়ি নাই, যন্ত্রপাতিসহ অনেক কিছু নাই। এটা যৌক্তিক প্রশ্ন। আমরা এগুলোন সমস্যা পুরণে কাজ করে যাচ্ছি। সমস্যা নিয়ে সরকারের সাথে আমাদের কথা হয়ে আছে। আগামী জাতীয় নির্বাচন শেষে আশা করছি আপনাদের চাহিদা পূরণ করতে পারবো। পর্যায়ক্রমে সকলের দাবি পূরণ করা হবে।

এ সময় সচিব আরো বলেন বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার হাসপাতালে রোগীর সমস্যা হলে তাৎক্ষণিক ভাবে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা সম্ভব হয় না। নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। অনেক সময় রোগীকে বাচাঁনোও সম্ভব হয়না। বিশেষ করে ঠাকুরগাঁ, পঞ্চপড়ের তেতুলিয়া যার দূরত্ব রংপুর থেকে ১শ কিলোমিটারের উপরে। তাই স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় সকল জেলাসহ উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতাল গুলোতে পর্যায়ক্রমে চিকিৎসা সেবার জন্য যন্ত্রপাতি দেয়ার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। যাতে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা যায়। আমাদের টার্গেট জনগণের দোরগোড়ায় চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা। রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা: এবিএমআবু হানিফের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোঃ খোরশেদ আলম, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আব্দুস সামাদ, যুগ্ন সচিব কাজী তাসমীন আরা আজমিরী, রংপুর বিভাগীয় কমিশনার হাবিবুর রহমান, রংপুর জেলার সেবক জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোবাশ্বের

হাসানসহ রংপুর বিভাগের সকল জেলার সিভিল সার্জন ও জেলা-উপজেলা হাসপাতালের তত্বাবধায়কগণ উপস্থিত ছিলেন।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments