অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে সন্ত্রাসী হামলায় হামলাকারীসহ দুজন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন অপর দুজন। শুক্রবার মেলবোর্নের বৌর্ক স্ট্রিটে স্থানীয় সময় বিকেল চারটায় এই হামলার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, হামলাকারী প্রথমে একটি গাড়িতে বিস্ফোরক জাতীয় দ্রব্য ছুড়ে মেরে আগুন লাগিয়ে দেন। পরে হাতে থাকা বড় ছুড়ি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় তিনি এলোপাতাড়ি তিনজনকে ছুরিকাঘাত করেন। এতে ঘটনাস্থলে একজন মারা যান। পুলিশ বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের ওপরও হামলা চালান ওই ব্যক্তি। পরে পুলিশ গুলি চালালে ওই ব্যক্তি আহত হন। হাসপাতালে নেওয়ার পর তিনি মারা যান। ভিক্টোরিয়া রাজ্য পুলিশ ঘটনাটিকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে নিশ্চিত করে প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশ তাঁকে শনাক্ত করতে পারলেও আপাতত পরিচয় প্রকাশ করা হবে না বলে জানিয়েছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, কালো পাঞ্জাবি পরা এক ব্যক্তি একটি গাড়িতে জ্বলন্ত কিছু একটা ছুড়ে মেরে দৌড় দিয়েছিলেন। পাশ থেকে একজন পথচারী তাঁকে ধরার চেষ্টা করলে তিনি তাঁকে ছুরিকাঘাত করেন। গাড়িতে আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। এ সময় ওই ব্যক্তি পুলিশ সদস্যদেরও ছুরিকাঘাত করার চেষ্টা করেন। তাঁকে থামানোর চেষ্টায় ব্যর্থ হলে পুলিশের একজন সদস্য তাঁর বুকে গুলি করেন।

স্থানীয় বাসিন্দাদের ভয়ের কোনো কারণ নেই বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন ভিক্টোরিয়া পুলিশ কমিশনার গ্রাহাম অ্যাশটন। তিনি হামলাকারীর পরিচয় সম্পর্কে শুধু বলেন, ‘তিনি সোমালিয়ায় জন্মেছিলেন এবং ১৯৯০ সালের দিকে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস শুরু করেন।’

গত বছর বৌর্ক স্ট্রিটে গাড়ি হামলা চালায় এক দল সন্ত্রাসী। সেই হামলার সঙ্গে এই হামলার কোনো যোগসূত্র আছে কি না, তা প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি।