অনলাইন ডেস্ক: সম্ভাব্য বিদেশি চরমপন্থার প্রভাব থেকে মুসলিম বাসিন্দাদের মুক্ত রাখতে নতুন একটি ‘মসজিদ কর’ বসানোর কথা ভাবছেন জার্মানির আইনপ্রণেতা।

বলা হচ্ছে, দেশটির মুসলিম সম্প্রদায়কে স্বাবলম্বী এবং তাদের ওপর নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে জার্মান সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। খবর ডয়েচে ভেলের।

জার্মানির অনেক মসজিদই বিদেশি অর্থায়ন ও নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হয়। তাই মসজিদের ভেতর কী ঘটছে তা নিয়ে অন্ধকারে রয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। এখন কয়েকজন জার্মান এমপি একটি আইডিয়া বের করেছেন, তারা এটিকে ওই সমস্যার ‘সমাধান’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।
পার্লামেন্টের একাধিক এমপি এটির সমাধান হিসেবে মসজিদের ওপর কর বসানোর প্রস্তাব দিয়েছেন। তাদের প্রস্তাব মতে, জার্মানির প্রত্যেক ধর্মপ্রাণ মুসলিম এ বিশেষ কর দেবেন। সেই করের অর্থ সরকারের কাছে নিবন্ধিত ইসলামি সংগঠনগুলোকে বিতরণ করা হবে। জার্মানিসহ ইউরোপের আরও কয়েকটি দেশে একইভাবে ক্যাথলিক এবং প্রোটেস্ট্যান্ট খ্রিস্টানদেরও কর দিতে হয়।