অনলাইন ডেস্ক: হাসপাতালে এসেছিলেন চিকিৎসা নিতে। কিন্তু এক লম্পটের খপ্পরে বিক্রি হয়ে যান যৌনপল্লিতে। ২৭ দিন পর ওই তরুণীকে মৃতপ্রায় অবস্থায় উদ্ধার করা হল সেই যৌনপল্লি থেকে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, মালদহ জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে গেলে তাঁকে পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় এসএসকেএম হাসপাতালে স্ত্রী রোগ বিভাগে রেফার করে দেওয়া হয়। বাড়িতে কেউ না থাকায় একাই কলকাতায় আসেন গত ডিসেম্বরের এক তারিখে। হাসপাতালে তাঁর সঙ্গে আলাপ হয় পাপ্পু নামে এক যুবকের। তরুণী কলকাতায় একটি থাকার জায়গা খুঁজছিলেন। কারণ তখনও তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি নেওয়া হয়নি। ওই যুবকের ফাঁদেই পড়ে যান তিনি।

পুলিশ সূত্রে খবর, তরুণী জানিয়েছেন, তাঁকে অপহরণ করে বিহারে নিয়ে গিয়ে ১ লাখ ১৫ হাজার টাকায় বেচে দেওয়া হয় এক যৌনপল্লিতে। সেই জায়গা বিহারের কোথায়, তা অবশ্য তিনি বলতে পারেননি। সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় নেপাল সীমান্তের কাছে বেতিয়াতে। সেখানেই রাখা হয়েছিল তাঁকে। যৌনপল্লির এক গ্রাহকের সাহায্যে প্রথম তিনি ভাইকে ফোন করেন। এরপর তার ভাইয়ের তৎপরতায় পুলিশের সাহায্যে তাকে একটি যৌনপল্লি থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।