লাদাখে চীনের সঙ্গে ফের সংঘর্ষে প্রাণ গেল ভারতীয় সেনার

বাংলাদেশ ডেস্ক : চীনের সঙ্গে নতুন করে শুরু হওয়া দ্বন্দ্বে হিমালয় সীমান্তে ভারতের স্পেশাল ফোর্সের তিব্বতি বংশোদ্ভূত এক সেনা মারা গেছেন বলে জানিয়েছে এএফপি।

দুই মাস আগের হাতাহাতিতে ভারতের ২০ সেনা মারা যাওয়ার পর গত ৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে দুইবার খণ্ডযুদ্ধে জড়ায় দেশ দুটি।

১৯৬২ সালে সীমান্ত-যুদ্ধে জড়ানো ভারত-চীন এবারও দাবি করেছে, লাদাখ অঞ্চল দখলের চেষ্টার সময় হাতাহাতি হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোনো পক্ষই এখনো হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেনি। তিব্বতি সংসদের নির্বাসিত সদস্য নামগিয়াল দোলকার লঘ্যারি এই খবর দিয়েছেন।

মঙ্গলবার তিনি বলেছেন, ‘শনিবার রাতে তিব্বতি বংশোদ্ভূত এক সৈনিক সংঘর্ষের সময় শহীদ হয়েছেন।’

তিনি নিহত ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেননি।

স্পেশাল ফ্রন্টিয়ার ফোর্সে তিব্বতের অনেক তরুণ চাকরি করেন। লঘ্যারি জানিয়েছেন, এই অঞ্চল চীন নিজেদের দাবি বলে করলে সেনারা প্রতিহত করেন। তখন অনেকে আহত হয়েছেন।

১৫ জুন গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চীন সংঘর্ষ হয়। এরপর প্রশাসনিক স্তরে আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন দুই দেশের রাজনীতিবিদেরা।

ভারতের দাবি, গত সপ্তাহে লাদাখের প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণ প্রান্ত দিয়ে চীন ‘ভারতীয় জমি’ দখলের চেষ্টা চালিয়েছিল। এরপর আলোচনার ভেতর একই এলাকায় ফের সংঘর্ষ হয়।