বাংলাদেশ ডেস্ক: কয়েক ডজন মুসলান যুবককে জোর করে দাড়ি কামাতে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে উজবেকিস্তান পুলিশের বিরুদ্ধে। দেশটির রাজধানী তাসখন্দ থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে ইয়াঙ্গিউল শহরে এ ঘটনা ঘটে।

সংবাদমাধ্যম রেডিও ফ্রি ইউরোপের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইয়াঙ্গিউল শহরে পুলিশ পুরুষদের ডেকে নিয়ে তাদের দাড়ি কামানোর জন্য বাধ্য করেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক অধিকারকর্মী বলেন, গত এক মাসে শুধুমাত্র ইয়াঙ্গিউলেই ২২ জন পুরুষের দাড়ি কামিয়েছে পুলিশ। সেখানে শুধুমাত্র ধার্মিক পুরুষদেরই দাড়ি কামাতে বাধ্য করা হয়।

তবে ভুক্তভোগী ওই যুবকরা বলছে, যারা ফ্যাশনের জন্য দাড়ি রেখেছে পুলিশ তাদের টার্গেট করে না। তারা শুধু মুসলমানদের টার্গেট করে।

ইয়াঙ্গিউলের এক বাসিন্দা বলেন, ‘পুলিশ বলছে- আমাদেরকে দেখতে সন্ত্রাসীদের মতো দেখাচ্ছে। আমরা আমাদের ঐতিহ্য এবং মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) এর সুন্নত অনুসারে দাড়ি বড় করেছিলাম। কিন্তু তারা আমাদের অধিকার লঙ্ঘন করেছে।’

তবে পুলিশের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলা হচ্ছে, কিছু নাগরিককে তাদের আইডি কার্ডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ চেহারা রাখার জন্যই দাড়ি কামানো ব্যাপারে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সূত্র : রেডিও ফ্রি ইউরোপ

Previous articleমুলাদীতে সোনামদ্দিন বন্দরে ৬ লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি
Next articleদণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার প্রতি প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতা বুঝতে ব্যর্থ বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।