বাংলাদেশ ডেস্ক: মেয়েশিশু হওয়ায় ফেলে দিয়ে গিয়েছিলেন মা। ‘পরম স্নেহে’ তাকে রাতভর আগলে রাখল আর এক মা। যে ঘটনায় বিস্মিত গোটা গ্রাম। ভারতের ছত্তীসগড়ের মুঙ্গেলী জেলার সরিসতাল গ্রামের ঘটনা।

সকালে মাঠের ধারে ঝোপের মধ্যে থেকে শিশুর কান্নার আওয়াজ পেয়েছিলেন কয়েকজন গ্রামবাসী। ওই আওয়াজ অনুসরণ করে ঝোপের কাছে পৌঁছতেই চমকে ওঠেন তারা। সম্পূর্ণ নগ্ন অবস্থায় শুয়েছিল শিশুটি। তখনো নাড়িজুড়ে ছিল সদ্যোজাতের দেহে। শিশুটিকে দেখে যত না অবাক হয়েছিলেন গ্রামবাসীরা, তার থেকে বেশি বিস্মিত হয়েছিলেন পাশে প্রহরী হয়ে বসে থাকা একটি মা কুকুরের ভূমিকায়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ওই ঝোপের মধ্যেই একটি কুকুরের বাচ্চা হয়েছিল। সেই বাচ্চাগুলির পাশেই শোয়ানো শিশুটি। আর তার পাশেই অতন্দ্র প্রহরীর মতো বসে ছিল আর এক মা। নিজের সন্তানদের যে ভাবে আগলে রাখে সে, ঠিক সে ভাবেই মানবশিশুকে যেন আগলে রেখেছিল কুকুরটি। আরও আশ্চর্যের, শিশুটির দেহে একটি আঁচড় পর্যন্ত লাগতে দেয়নি সে।

স্থানীয়রা তখন পুলিশে খবর দেন। সরিসতাল গ্রাম পঞ্চায়েতের এক সদস্য মুন্নালাল পটেল এক সর্বাভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা কাজের জন্য বেরিয়েছিলাম। তখন সকাল ১১টা। হঠাৎই মাঠের ধারে এক শিশুর কান্নার আওয়াজ পেয়ে সেখানে যাই। গিয়ে দেখি একটি সদ্যোজাত শিশুকন্যা কুকুরের পাশে শুয়ে। মা কুকুর এবং তার বাচ্চাও ছিল সেখানে। রাতভর শিশুটিকে আগলে রেখেছিল কুকুরটি। আমরা পুলিশ এবং স্বাস্থ্য দফতরকে খবর দিই। ওরা এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে নিয়ে গেছে।
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Previous articleসোনারগাঁওয়ে মাদকের অনৈতিক কাজে বাধা দেওয়ার ৩০টি ফলজ গাছ কর্তন
Next article‘যতই দিন যাচ্ছে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার ততই অবনতি ঘটছে’
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।