বাংলাদেশ ডেস্ক: ইরান ঘোষণা দিয়েছে যে তারা ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধে একটি কার্যকর ব্যবস্থার উন্নয়ন করেছে। এ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধক ব্যবস্থাটি টি-৭২এম ট্যাঙ্কের সাথে যুক্ত করে তা ব্যবহার করা হবে। এর মাধ্যমে এসব ট্যাঙ্কগুলো যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্রের আক্রমণ প্রতিহত করতে পারবে বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা দ্যা ফার্স। বৃহস্পতিবার এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে মিডল ইস্ট মনিটর।

ইরানের দক্ষিণাঞ্চলের তিন প্রদেশের সমুদ্র ও স্থলভাগে সামরিক অনুশীলন চলছে। এ সামরিক অনুশীলন চলার তৃতীয় দিনে ওই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধক ব্যবস্থার কথা ঘোষণা করা হয়।

ইরানি সংবাদ সংস্থা ফার্স বলেছে, এ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধক ব্যবস্থাটি পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন এটাকে ট্যাঙ্কের সাথে যুক্ত করা হবে। এ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে যেকোনো ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র বা মিসাইলের অভ্যন্তরীণ ব্যবস্থাকে অকেজো করে ফেলা যাবে। এর মাধ্যমে সকল ধরনের মিসাইল (ক্ষেপণাস্ত্র) আক্রমণ প্রতিহত করা যাবে।

ইরানের রেভুলেশনারি গার্ডের স্থল বাহিনী প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ পাকপুরের বরাত দিয়ে দেশটির গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ইরানি ট্যাঙ্কের প্রধান কামানের মাধ্যমে তিন কি.মি. দূরের লক্ষ্যবস্তুতে (ক্ষেপণাস্ত্র বা মিসাইল) আঘাত করা যাবে এবং রাতের সময়ও নির্ভুলভাবে আক্রমণ করা যাবে।

এদিকে ইরানি রেভুলেশনারি গার্ডের নৌবাহিনী প্রধান কমডোর আলিরেজা তাংসিরি বলেন, এ সামরিক অনুশীলনে ইরানের তৈরি অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়েছে।

সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর

Previous articleঝালকাঠিতে লঞ্চে ভয়াবহ আগুন, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০
Next articleসুগন্ধা নদীতে লঞ্চে আগুন: যেভাবে স্ত্রীসহ প্রাণে বাঁচলেন ইউএনও
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।