বাংলাদেশ ডেস্ক: তিন ছেলেসহ ইসলাম গ্রহণ করেছেন পূর্ব ইউরোপের দেশ মলদোভার এক নারী।

গত মঙ্গলবার তুরস্কের বুরসা প্রদেশের ইজনিক জেলার দারুল ইফতায় আনুষ্ঠানিকভাবে ইসলামে প্রবেশ করেন তারা।

ওই নারীর নাম নাতালিয়া নিকোলাই (৪০)। তিনি বুরসায় বসবাস করেন। প্রথমে ইন্টারনেটে ইসলাম সম্পর্কে প্রচুর পড়াশোনা করেন তিনি। এক পর্যায়ে এমন দৃঢ় বিশ্বাসে উপনীত হন যে, ওই বিশ্বাস-ই তাকে ইসলাম গ্রহণে অনুপ্রাণিত করে। বিশেষত বুরসার দারুল ইফতার সাথে যোগাযোগের পর তার ওই বিশ্বাস আরো পোক্ত হয়।

ইসলামে দীক্ষিত হওয়ার পর নাতালিয়া ও তার তিন ছেলের আগের নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম রাখা হয়। নাতালিয়ার বর্তমান নাম দিনিজ আর তার ছেলেদের নাম যথাক্রমে রোবর্ট থেকে মোস্তফা (৫), আন্তেরিয়ান থেকে ইউসুফ (৯) ও নিকোলাস থেকে ওমর (১১)।

নাতালিয়ার ইসলাম গ্রহণ উপলক্ষে মঙ্গলবার বুরসার দারুল ইফতায় একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বুরসার প্রাদেশিক মুফতি শায়খ উজির ইয়াফাশের উপস্থিতিতিতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটির সূচনা হয়।

এ সময় শায়খ উজির ইয়াফাশ বলেন, ‘আমরা মুসলিমরা বিশ্বাস করি যে, সমস্ত নবী-রাসূল আল্লাহর পক্ষ থেকে প্রেরিত এবং তারা সবাই সত্য। আর সর্বশেষ নবী হলেন- মোহাম্মদ সা:। পবিত্র কুরআনে কারিম আল্লাহর কিতাব এবং তাঁর তরফ থেকে সবশেষ ওহী। তাতে যা আছে আমরা তা নিঃসন্দেহে বিশ্বাস করি। আমরা বিশ্বাস করি ফেরেশতাদের, তাকদিরের ও পুনরায় জীবিত হওয়ার ওপর।’

নওমুসলিমা দিনিজ বলেন, ‘আমি অনুভব করছি ইসলাম গ্রহণের মাধ্যমে নতুনভাবে জন্মলাভ করলাম। আমি খুবই ভাগ্যবতী। যখন আমি ইসলাম নিয়ে জানাশোনা শুরু করি, তখন-ই বুঝতে পারি যে, এটিই আসলে বিশ্বের একমাত্র সত্য ধর্ম। ওই সত্ত্বার প্রতি কৃতজ্ঞতা যিনি এই সবকিছু সম্ভব করলেন।’

অনুষ্ঠান শেষে বুরসার মুফতি দিনিজকে বিশেষ উপঢৌকন দেন। তার মধ্যে তার মাতৃভাষায় অনূদিত পবিত্র কুরআনের প্রতিলিপি। তার ছেলেদের উপযোগী ইসলামী বই ও খেলনা সামগ্রী।

সূত্র : আরটি ডট এজেন্সি

Previous articleরাজধানীতে ক্রেন ভেঙে মাথায় পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু
Next articleজোর করে কাউকে নির্বাচনে আনা সম্ভব নয়: সিইসি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।