বাংলাদেশ ডেস্ক: ল্যান্ডের অধিবাসী আরনুডো ফাওয়ান্ডার। প্রাথমিক জীবনে খুব ইসলাম বিদ্বেষী ছিলেন। কিন্তু একসময় আল্লাহর অপার অনুগ্রহে তার হৃদয় বিগলিত হয় এবং ইসলাম গ্রহণ করেন।

আরনুডো ফাওয়ান্ডার বিশ্বনবী হজরত মোহাম্মদ সা:-কে নিয়ে অবমাননাকর ছবিও নির্মাণ করেছিলেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইসরাইল ও আমেরিকান লবি আমাকে বিশ্বনবী মোহাম্মদ সা:-কে নিয়ে অবমাননাকর সিনেমা নির্মাণের জন্য প্ররোচিত করেছিলো। আজ আমি সে কাজের জন্য খুবই লজ্জিত।

আরনুডো ফাওয়ান্ডার এক সাক্ষাতকারে আরো বলেন, আমি সেই অপরাধটি করার পর নিজের মধ্যেই ভুল বুঝতে পারি। তখন কিছুটা বিচলিত হয়ে যাই। ফলে একপর্যায়ে আমার ইসলাম গ্রহণের সুযোগ হয়। তিনি আরো বলেন, ইসলামের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী সংগঠন থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছি। এখন একটি ইসলামী সংগঠন করার কথা ভাবছি (সাক্ষাৎকার দেয়ার সময়কার কথা)। আমি মনে করি, হল্যান্ডের রাষ্ট্রীয় আইন ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক সংগঠন করতে বাধা দেয় না। বরং পূর্ণ অনুমোদন দিয়ে থাকে।

তিনি জানিয়েছেন, আমি যখন ওই ফিল্ম তৈরি করি তখন আমার ধারণা ছিলো ইউরোপের জন্য ইসলাম হুমকিস্বরূপ এবং ইসলামের কারণে এখানে বিরূপ প্রভাব পড়ছে। কিন্তু পরবর্তীকালে আমার এ ভুলও ভেঙ্গে যায়। ইসলাম সম্পর্কে সঠিক ধারণা না থাকায় আমি এমনটি মনে করতাম। এটা ছিলো আমার মুর্খতার ফল। তিনি আরো বলেন, ফিল্ম তৈরির মাধ্যমে আমরা মানুষকে ইসলাম সম্পর্কে সতর্ক করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আজ আমি তার জন্য লজ্জিত।

সূত্র : আর রায়

Previous articleরাজশাহী মহানগরীতে গাঁজাসহ নারী মাদক কারবারি
Next articleউল্লাপাড়ায় বজ্রপাতে এক পরিবারের ৩ জনসহ ৯ জনের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।