বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজধানীর মিরপুর মডেল থানার মাদক মামলায় আসামি সম্রাট উজ্জল ওরফে উত্তম সাহা এবং তার স্ত্রী রত্মা ওরফে মোছা. রত্মাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

বুধবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক মনির কামাল এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়া আরেক ধারায় রত্মা ও উজ্জলকে ১০ বছর কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তাদের আরো তিন মাস কারাভোগ করতে হবে।

উভয় ধারার সাজা একত্রে চলবে। সেক্ষেত্রে তাদের সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

এ মামলার অপর আসামি রিপনের ছয় বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ মামলার তিন আসামিই পলাতক। আদালত তাদের অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণা শেষে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

মামলার সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই বিকেলে মিরপুর থানার বেগম রোকেয়া স্মরণীর অনামিকা কনকর্ড টাওয়ারের সামনে থেকে চার শ’ পিস ইয়াবাসহ রিপনকে আটক করে ডিবি পুলিশ। তার দেয়া তথ্য মতে, উজ্জলের বাসায় অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ। সেখান থেকে ১৯ হাজার ছয় শ’ পিস ইয়াবা এবং তিন শ’ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। এ সময় উজ্জলের স্ত্রী রত্মাকে আটক করে ডিবি পুলিশ।

এ ঘটনায় মিরপুর জোনাল টিমের এসআই (নিরস্ত্র) রফিকুজ্জামান মিঞা ওইদিন একটি মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে ওই বছরের ১ অক্টোবর তিনজনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন মিরপুর জোনাল টিমের পুলিশ পরিদর্শক মীর রেজাউল ইসলাম।

Previous articleসাপাহারে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Next articleঈশ্বরদীর পদ্মার চরে বাদাম চাষ, যেন বালুর নিচে লুকানো সোনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।